আদর্শ রাজনৈতিক দলটি যেভাবে জনগণের কাছে পৌঁছাবে

আদর্শ রাজনৈতিক দলটি দ্রুত দলের মূলনীতি ঘোষণা দিয়ে জনগণের পাশে গিয়ে দাঁড়াবে।

উপস্থিতি প্রথম থেকেই জনগণের কাছে দৃঢ়তার সাথে জানানো হবে। বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের প্রতিনিধিত্ব থাকবে।

বাংলাদেশের মানুষ পরিকল্পনাবিহীন অপরাজনীতি দেখে অভ্যস্ত। জনগণ জানে না সুপরিকল্পিত সুশাসন দেশকে কোথায় নিয়ে যেতে পারে। বাংলাদেশ সঠিকভাবে পরিচালিত হলে স্বপ্নের বাংলাদেশ কেমন হবে তার এবং সেই স্বপ্নের বাংলাদেশে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের জীবনের একটা চিত্র জনগণের সামনে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে তুলে ধরে জনগণকে সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশের স্বপ্নে উজ্জীবিত করা হবে। দৃঢ়তার সাথে জনগণকে জানানো হবে স্বপ্নের বাংলাদেশের লক্ষ্যে পরিবর্তন এবারই আসছে।

জাতি ধর্ম বর্ণ শ্রেণী পেশা নির্বিশেষে কারও উপর যাতে কখনও অন্যায় না হয়, জনগণকে এলাকায় এলাকায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে তা নিশ্চিত করতে আহ্বান জানান হবে এবং দলটি এক্ষেত্রে জনগণের পাশে থাকবে। এটি যেহেতু জনগণের দল হবে কাজেই জনগণ সব ধরণের মাধ্যম ব্যবহার করে যাতে দলটির কাছে প্রত্যাশা, মতামত, আশা আকাঙ্ক্ষা তুলে ধরতে পারে সে বাবস্থা নেওয়া হবে।

দলটিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো (ফেইসবুক, ব্লগ, ওয়েব সাইট, মোবাইল ইত্যাদি) ব্যবহার করে জনগণের মতামত, আশাআকাঙ্ক্ষা বোঝার চেষ্টা করবে।

আদর্শ দলের নেতারা জানেন, জনগণের পাশে দাঁড়ালে, জনগণের আশা আকাঙ্ক্ষা বোঝার চেষ্টা করলে এবং সেই লক্ষ্যে কাজ করলে, জনগণও তাদের পাশে থাকবে।
দলটি দেশের জনসংখ্যাকে বিভিন্ন ডেমোগ্রাফিকে বিভক্ত করে ভিন্ন ভিন্ন ডেমোগ্রাফিকের কাছে আলাদা আলাদা ভাবে পৌঁছাবে।
তরুণদের কাছে পৌঁছাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোকে ব্যবহার করবে। তরুণদের জন্য প্লাটফর্ম তৈরি করে দেবে যাতে ওরা বিভিন্ন উদ্যোগ নিতে পারে।
গ্রামের গরিব দুঃখী অসহায় মানুষগুলোর পাশে গিয়ে তাদের সমস্যা বোঝার চেষ্টা করবে। গ্রামের বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা সবাই মিলে সমাধানের উদ্যোগ নেবে।
শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার আদায়ে তাদের পাশে দাঁড়াবে।
বাবসায়িদের বাবসাবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টির উপায় নিরুপন করে উদ্যোগ নেবে।
সৎ বিনিয়োগকারিদের অভিযোগগুলো বোঝার চেষ্টা করবে।
দেশের সম্পদ রক্ষায়, দেশের বৃহত্তর কল্যাণে যারা কাজ করছে তাদের পাশে গিয়ে দাঁড়াবে।
বিভিন্ন ক্ষেত্রে যারা অন্যায় করছে, দুর্নীতি করছে, সেই অন্যায়, দুর্নীতিগুলোর বিরুদ্ধে সবাইকে নিয়ে অবস্থান নেবে।

জনগণকে নিয়ে বিভিন্ন সমস্যা কিভাবে সমাধান করা যায় – তা সবাই মিলে নির্ধারণ করে সম্মিলিতভাবে বাবস্থা নেবে।

প্রতিটি কাজে জনগণকে সম্পৃক্ত করবে।

আমাদের রাজনীতি সচেতন জনগণও শুধুমাত্র চায়ের কাপে নেতানেত্রীদের আলোচনা – সমালোচনার মাঝে রাজনীতিকে সীমাবদ্ধ রাখবেন না, বরং তারাই হবেন রাজনীতির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ – তাদের কেন্দ্র করেই দেশের রাজনীতি পরিচালিত হবে – আদর্শ দল তা নিশ্চিত করবে।

আদর্শ রাজনৈতিক দলের নেতারা ইতিহাসের মহানায়কদের মত জানেন, ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গির, ভিন্ন আদর্শ, মূল্যবোধে বিশ্বাসী মানুষকে নতুন সঠিক দৃষ্টিভঙ্গি দেখাতে পারলে তারা তা গ্রহণ করবেন। তারা নিজেরাও নিজেদের সবজান্তা ভাবার ধৃষ্টতা না দেখিয়ে, নিজেদের পথই একমাত্র সঠিক পথ না ভেবে, ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি, ভিন্ন মূল্যবোধ গভীরভাবে বোঝার এবং গ্রহণ করার মানসিকতা দেখাবেন। সমগ্র দেশের চেতনাকে ধারণ করতে তারা বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গির মানুষদের দূরত্ব দূর করে একতাবদ্ধ করবেন।

পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো ব্যবহার করে কেউ যেন মিথ্যা অপপ্রচার চালাতে না পারে, গুজব রটাতে না পারে – সেই লক্ষ্যে সচেতনতা সৃষ্টি এবং দৃঢ় অবস্থান নেবে।

স্বপ্নের বাংলাদেশ কেমন হবে তা বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের জন্য উপযোগী করে, বিভিন্ন স্থানের উপযোগী করে ভিন্ন ভিন্ন ভিডিও চিত্রে (প্রয়োজনে আঞ্চলিক ভাষায়) ফুটিয়ে তোলা হবে।

পরবর্তীতে জনগণ কিভাবে সম্মিলিতভাবে সেই লক্ষ্যে কাজ করছে তাও চিত্রিত করে সবাইকে অনুপ্রাণিত করা হবে।

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s