গুম অপহরণ খুন বন্ধে জনগণ এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সম্মিলিত উদ্যোগ জরুরি

রাজনীতিতে আসতে পারলে বাংলাদেশে আইন শৃঙ্খলার উরধে ওঠা যায় বলে যে ধারণাটি প্রচলিত ছিল – আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় গত কয়েক মাসে তা পাল্টে গেছে।  
 
 
 
সাংসদ বা দল ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় কক্সবাজারের বদি [9], নারায়ণগঞ্জের শামীম ওসমান, আজমেরী ওসমানদের সবগুলো টর্চার সেল গত ৬-৭ মাসে বন্ধ হয়েছে [1]। 
 
ত্বকী হত্যাকারী আজমেরী ওসমান কয়েকমাস আগে গ্রেপ্তার এড়াতে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। তার মত অপরাধীদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।  
 
“মাদকমুক্ত বাংলাদেশ” গড়ার পথে গত ৩ মাসে আমরা অনেক দূর এগিয়েছি। টেকনাফ সীমান্তে মাদক – ইয়াবা  – অস্ত্র চোরাচালান স্থায়ীভাবে বন্ধ হচ্ছে [2] [3] [4] [9]।  
 
অর্থ পাচারের অভিযোগে বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ গ্রেপ্তার হয়েছেন [5]। দুর্নীতি দমন কমিশন সাংসদ থাকা অবস্থায় দুর্নীতির অভিযোগে সাংসদদের বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি সম্পন্ন করছেন [8]।  
 
এককালের দুর্ধর্ষ বদি – ওসমানদের জন্য ভয়ানক পরিণতি অপেক্ষা করছে। 
 
আজকে যারা গুম অপহরণ চালাচ্ছে, খুন করছে, তারা নিজেদের যত বড় ক্ষমতাশালী মনে করুক না কেন – তাদেরও বিচারের মুখোমুখি হয়ে ভয়ানক পরিণতি বরণ করতে হবে।   
 
 
 
আমরা প্রত্যাশা করি, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনী এসব ঘৃণ্য অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে, দেশের জনগণের জানমালের নিরাপত্তা রক্ষায় বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন। 
 
 
 
জনগণকেও নিতে হবে দায়িত্বপূর্ণ ভূমিকা। 
 
প্রকৃতপক্ষে, অন্যায়কারীরা সংখ্যায় নগণ্য – জনগণের ঐক্যের সামনে দাঁড়ানোর মত ক্ষমতা তাদের নেই। জনগণের একমাত্র দায়িত্ব – একতাবদ্ধ হওয়া।    
 
জনগণের প্রতি আহ্বান – অন্যায়কারীদের হাতে নাতে ধরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের হাতে তুলে দেবেন। অন্যায়কারীদের অন্যায় করার স্থান ঘিরে ফেলুন – বন্ধ করে দিন।
 
সাংবাদিকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করুন। আমরা অন্যায়কারীদের অন্যায়ের উপর প্রতিবেদন, ছবি, ভিডিও দেখতে চাই।   
 
তবে সাবধান – জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া বা দেশের সম্পদের ক্ষতি হয় এমন কোন কাজ করবেন না। সম্পদের ক্ষতি হলে আপনিও আইনের চোখে অপরাধী হয়ে পড়বেন। আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, আদালতের উপর আস্থা রাখুন। 
 
অন্তত দলবেঁধে প্রতিবাদ জানান। অন্যায়কে এবং অন্যায়কারীকে সবার দৃষ্টিতে আনুন। আমরা ব্যবস্থা নেবো।  

আজকে যারা অন্যায় করছেন, প্রতিবাদ না করলে, কাল তারা গুম – অপহরণ – খুনের দিকে যাবেন। 

আমরা সমস্ত অন্যায়, অবিচার, দুর্নীতি, অপরাধের বিরুদ্ধে লক্ষ লক্ষ প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর দেখতে চাই। 


 
রেফরেন্স
  1. ভেঙে ফেলা হচ্ছে আজমেরী ওসমানের সেই টর্চার সেল
  2. দেশের সন্ত্রাসীদের গডফাদার দুর্নীতিবাজদের ভয়াবহতার একটি চিত্র – ২ বদিরা ৬ ভাই
  3. “মাদকমুক্ত বাংলাদেশ” গড়ার পথে অগ্রযাত্রা
  4. “মাদকমুক্ত বাংলাদেশ” গড়ার পথে অগ্রযাত্রা – ২
  5. কোটি টাকা পাচারকারী বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন
  6. স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নাগরিক শক্তির অগ্রযাত্রা
  7. জনতার ঐক্যের শক্তির মাধ্যমে অন্যায় এবং অন্যায়কারীকে রুখে দাঁড়ানো – ১
  8. বদির বিরুদ্ধে অনুসন্ধান প্রতিবেদন দাখিল, অবৈধ সম্পদের সন্ধান
  9. আইন-শৃঙ্খলা-বাহিনীর হাত থেকে রক্ষা পেতে অসুস্থ হিসেবে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সংসদ সদস্য বদি; চার ভাইয়ের মধ্যে কেবল আব্দুল শুক্কুর ছাড়া বকিরা বর্তমানে ঢাকায় আত্মগোপণে; শুক্কুর বর্তমানে বিদেশে আত্মগোপণে

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s