নাগরিক নিরাপত্তা নাগরিক আস্থা

বাংলাদেশের মানুষ এখন বিশ্বাস করে, সবাইকে দেখার মত মানুষ দেশে আছে।
কোন দাবি, কোন পাওয়া জানানোর মত মানুষ আছে।
বাংলাদেশের আনাচে কানাচের মানুষ এখন জানে, মানববন্ধন করে কোন দাবি পত্রিকায় আনতে পারলে – দেখার মত মানুষ আছে।

ফেনীর মানুষ আগে ভয়ে কাঁপত। খুন থেকে শুরু করে সবকিছু চলত – কিন্তু মুখ ফুটে বলার মত সাহস কারও ছিল না।
ফেনীর লক্ষ লক্ষ মানুষ এখন জানে – পাশে এসে দাঁড়ানোর মত মানুষ বাংলাদেশে আছে, সন্ত্রাসীদের গডফাদারদের চেয়েও শক্তিশালী মানুষ আছে – যারা পাশে এসে দাঁড়াবে।

নারায়ণগঞ্জেও একই ব্যাপার।
ত্বকীর কথা আমরা সবাই জানি।
আরও আছে।
চাঁদা দাবি করেছে, চাঁদা না দেওয়ায় ৪/৫ বছরের শিশু সন্তানকে মেরে ফেলেছে – কিছু করার নেই।

নারায়ণগঞ্জের লক্ষ লক্ষ মানুষ এখন জানে অন্যায়ের বিরুদ্ধে পাশে এসে দাঁড়ানোর মত মানুষ দেশে আছে।

কক্সবাজারের মানুষ এখন অনেক শান্তিতে।

ফেনী বা নারায়ণগঞ্জের একজন মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে ভাবো।
আগে জীবনের ভয়ে, চাঁদাবাজির ভয়ে থাকতে হত। সাংসদ, চেয়ারম্যান যারা নিজেরা খুন-চাদাবাজি নিয়ন্ত্রণ করেন 
তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুললে নিজের জীবন শেষ। চুপচাপ সহ্য করা ছাড়া কিছু করার নেই।
এখন ওরা অনেক শান্তিতে – সবার আস্থা আছে – দেখার মত শক্তি দেশে আছে।

সাংবাদিকরা জানে – তাদের উপর অন্যায় হলে প্রতিবাদ করার মত অনেক বড় শক্তি আছে।

আরও কত!

দেশের বিভিন্ন এলাকার মানুষ মাদক, যৌতুক, খাদ্যে ভেজাল থেকে শুরু করে সামাজিক নানা দাবিতে মানববন্ধন এবং শান্তিপূর্ণ নানা কর্মসূচী দিচ্ছে।

মানুষের সামনে অনলাইন – বাস্তব জীবনে উদাহরণ তৈরি হয়েছে অন্যায়কারীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা যায়।
অন্যায়কারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া শুরু হয়েছে।

অন্যায়ের বিরুদ্ধে অন্যায়কারীর বিরুদ্ধে মানুষ প্রতিবাদ করছে। মানুষের ভয় কেটে গেছে।

 

২২/৫/১৪:

কিলাররা তিন গ্রুপে ভাগ হয়ে অংশ নেয়
“ছকাকাটা পরিকল্পনা অনুযায়ী নিখুঁতভাবে ঘটানো হল একটি হত্যাকাণ্ড। প্রকাশ্য দিবালোকে, শত শত মানুষের চোখের সামনে।”
“আমি কথা বলতে পারি না – বোবা। একবার মুখ খুললেই চিরতরে মুখ বন্ধ হয়ে যাবে।”

ফেনীর সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারীসহ সব সন্ত্রাসীদের গডফাদার, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, এবং মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া অচিরেই শুরু হবে।
নারায়ণগঞ্জ, কক্সবাজারের পাশাপাশি ফেনীতে আমাদের ফোকাস থাকবে।
বদি, ওসমানদের সাথে নিজাম হাজারীর নামও যুক্ত হল।
ফেনী জেলাকে অপরাধ্মুক্ত করা হবে।

৩০/৫/১৪:

ফেনীর একরাম হত্যা ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে অগ্রগতি

একরাম হত্যা মামলার আসামী বেলাল ৫ দিনের রিমান্ডে
আরও একজনের ৫ দিনের রিমান্ড (banglanews24.com)
উত্তাল ফুলগাজী আদেলের খোঁজে পুলিশ (mzamin.com)
ফুলগাজীতে নিজাম হাজারীর ফাঁসি দাবি

“আমি কথা বলতে পারি না – বোবা। একবার মুখ খুললেই চিরতরে মুখ বন্ধ হয়ে যাবে।” থেকে “ফুলগাজীতে নিজাম হাজারীর ফাঁসি দাবি”। 
অন্যায়কারীদের বিরুদ্ধে জনগণের সাহস কতটা বেড়ে গেছে!


[রেফরেন্স
গুম অপহরণ খুন বন্ধে জনগণ এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সম্মিলিত উদ্যোগ জরুরি

অন্যায়কারীরা সংখ্যায় নগণ্য – জনগণের ঐক্যের সামনে দাঁড়ানোর মত ক্ষমতা তাদের নেই। জনগণের একমাত্র দায়িত্ব – একতাবদ্ধ হওয়া।    

জনগণের প্রতি আহ্বান – অন্যায়কারীদের হাতে নাতে ধরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের হাতে তুলে দেবেন। অন্যায়কারীদের অন্যায় করার স্থান ঘিরে ফেলুন – বন্ধ করে দিন।
 
সাংবাদিকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করুন। আমরা অন্যায়কারীদের অন্যায়ের উপর প্রতিবেদন, ছবি, ভিডিও দেখতে চাই।   
 
তবে সাবধান – জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া বা দেশের সম্পদের ক্ষতি হয় এমন কোন কাজ করবেন না। সম্পদের ক্ষতি হলে আপনিও আইনের চোখে অপরাধী হয়ে পড়বেন। আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, আদালতের উপর আস্থা রাখুন। 
 
অন্তত দলবেঁধে প্রতিবাদ জানান। অন্যায়কে এবং অন্যায়কারীকে সবার দৃষ্টিতে আনুন। আমরা ব্যবস্থা নেবো।  

আজকে যারা অন্যায় করছেন, প্রতিবাদ না করলে, কাল তারা গুম – অপহরণ – খুনের দিকে যাবেন। 
 

আমরা সমস্ত অন্যায়, অবিচার, দুর্নীতি, অপরাধের বিরুদ্ধে লক্ষ লক্ষ প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর দেখতে চাই। “]

(জুন ২০১৪ তে লেখা)

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s