আজকের উপলব্ধিতে বাংলাদেশ (৩/৭/১৪)

1.টেকনাফ স্থলবন্দরে ১৯ কোটি টাকার অতিরিক্ত রাজস্ব আদায় (banglanews24.com)

টেকনাফ স্থলবন্দরে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এবং প্রশাসনের দায়িত্বশীল ভূমিকা প্রশংসনীয়।

2.কৃষিতে নবজাগরণ

নেত্রকোনায় তিন মৎস্যচাষিকে সম্মাননা প্রদান (banglanews24.com)

3.অর্থনীতি বাণিজ্য শিল্পে অগ্রগতি

আইএমএফ প্রতিনিধির সঙ্গে এফবিসিসিআই নেতাদের মতবিনিময় (banglanews24.com)

“FBCCI এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মনোয়ারা হাকিম আলী বলেন, বাণিজ্য বিনিয়োগ নীতিমালা, ব্যাংকিং, অর্থ, আমদানি রপ্তানি অর্থায়ন ও লেনদেন , এসএমই খাতের প্রসারে IMF এর সাথে বেসরকারি খাত কাজ করতে পারে।”

4.অন্যায় অপরাধমুক্ত উন্নত সিলেট জেলা গড়ে তোলায় অগ্রগতি

সিলেটে মুক্তিযোদ্ধা চত্বরের অবৈধ দোকানপাট উচ্ছেদ (banglanews24.com)

5.আমি মার্কিন যুক্তরাস্ট্রে বাংলাদেশী পণ্যের অবাধ বাজার সুবিধা (জিএসপি) নিশ্চিত করবো। এ লক্ষ্যে যা করা দরকার – শ্রমিকদের নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করা, কূটনৈতিক উদ্যোগ – নেবো।

6.বাংলাদেশকে এক নম্বর ব্র্যান্ড হিসেবে দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র (banglanews24.com)

6.ভেজাল খাদ্য এবং ফরমালিন মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলায় অগ্রগতি

ফরমালিনের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে: ডিএমপি কমিশনার বেনজীর আহমেদ (kalerkantho.com)

“ডিএমপি কমিশনার বেনজীর আহমেদ গুলশান – ২ এলাকায় ফরমালিন বিরোধী প্রচারণায় অংশ নেন।
কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ প্রচারণার সাথে একাত্নতা প্রকাশ করেন।”

খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে কিশোরগঞ্জে মানববন্ধন (banglanews24.com)

7.চট্টগ্রাম বন্দর দেশের অর্থনীতির চাকা ঘুরিয়ে দিতে পারে।

আমাদের দেশের প্রধান রপ্তানি পণ্য গার্মেন্টস মূলত চট্টগ্রাম বন্দর দিয়েই বাইরের দেশগুলোতে রপ্তানি হয়।
বর্তমানে চট্টগ্রাম বন্দরে একটি জাহাজ turnaround হতে গড়ে আড়াই দিন সময় লাগে। তুলনামূলকভাবে, সিঙ্গাপুর বন্দরে সময় লাগে গড়ে ১২ ঘন্টা।
আমরা যদি চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজ turnaround সময় কমিয়ে আনতে পারি তাহলে আমদানি – রপ্তানি বাণিজ্য বৃদ্ধি পাবে।
একটা ব্যাপার মনে রাখতে হবে, আমাদের আমদানি রপ্তানি বাণিজ্য কিন্তু দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে।
McKinsey ধারণা করছে, বাংলাদেশের আগামী ১০ বছরে গার্মেন্টস পণ্য রপ্তানি দ্বিগুণ করার সুযোগ রয়েছে। আমরা মনে করি, আগামী ৫ বছর বা তারও আগে গার্মেন্টস পণ্য রপ্তানি দ্বিগুণ হবে।
এই রপ্তানি কিন্তু চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করেই হবে।
এই রপ্তানির জন্য গুরুত্বপূর্ণ হবে চট্টগ্রাম বন্দরের কনেটাইনার হান্ডলিং কাপাসিটি বাড়ানো এবং জাহাজ turnaround সময় কমিয়ে আনা। এই লক্ষ্যে আধুনিক যন্ত্রপাতি এবং Management চট্টগ্রাম বন্দরে
introduce করা হবে।

চট্টগ্রাম বন্দরের আন্তর্জাতিক গুরুত্ব অনেক বেশি।
নেপাল আর ভুটানের পণ্য আমদানি রপ্তানির জন্য নিজস্ব কোন নদী বা সমুদ্র বন্দর নেই।
চট্টগ্রাম বন্দরের আধুনিকায়ন করলে নেপাল, ভুটান পণ্য আমদানি রপ্তানির জন্য চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করবে।
আবার ভারত তার উত্তরপূর্ব প্রদেশগুলোর সাথে পণ্য আদান প্রদান করতে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করতে চাইবে।

গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হল – চট্টগ্রাম বন্দর একটি নদী বন্দর। কাজেই দীর্ঘ পণ্যবাহী জাহাজ (৬১৭ ফিট এর চেয়ে দীর্ঘ) চট্টগ্রাম বন্দরে প্রবেশ করতে পারে না।
কাজেই আমাদের রপ্তানি বাণিজ্য পণ্য প্রথমে সিঙ্গাপুর, শ্রীলংকা এবং মালয়েশিয়ার ৪টি বন্দরে পৌঁছানো হয় এবং সেসব বন্দর থেকে দীর্ঘ পণ্যবাহী জাহাজের মাধ্যমে বাইরের দেশগুলোতে যায়।

দীর্ঘ পণ্যবাহী জাহাজ প্রবেশের সুযোগ দিতে আমাদের একটি গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ করতে হবে। সোনাদিয়ায় একটি গভীর সমুদ্র বন্দর গড়ে তোলার পরিকল্পনা আছে।

এক্ষেত্রে আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বী মায়ানমারের নির্মাণাধীন Sittwe Port। ভারত নিজেদের সুবিধার্থে এই “গভীর সমুদ্র বন্দর” নির্মাণে মায়ানমারকে সহায়তা করছে।

আধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্বলিত efficient গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ করতে পারলে চায়না, ভারতসহ বিভিন্ন দেশ সেই বন্দর ব্যবহার করবে। আর এর মাধ্যমে বাংলাদেশ বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করবে।

টেকনিক্যাল কাজগুলোতে বিদেশী এক্সপারটাইসের উপর নির্ভরতার ট্রেন্ডটিতে পরিবর্তন আনা হবে।
আমাদের গভীর সমুদ্র বন্দর আমরা নিজেরা নির্মাণ করবো।
এই লক্ষ্যে আমি দেশে ইঞ্জিনিয়ারিং প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলবো।

এই মুহূর্তে গুরুত্বপূর্ণ হবে দ্রুত নিউমুরিং কনটেইনার টার্মিনাল চালু। শুধুমাত্র সিধান্ত নিতে দেরি হওয়ায় নিউমুরিং কনটেইনার টার্মিনাল চালু আটকে রয়েছে।

8.চট্টগ্রাম বন্দর: গত অর্থবছরে বেড়েছে প্রায় ১১ শতাংশ: কনটেইনারে পণ্য পরিবহণ বৃদ্ধি (prothom-alo.com)

9.প্রকৃত গণতন্ত্র চর্চার জন্য সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে হবে। সংবাদমাধ্যমের নিয়ন্ত্রণমূলক কোন আইন এদেশের জনগণ মেনে নেবে না।

অর্জনটি হারিয়ে যেতে দেবো না: মনজুরুল আহসান বুলবুল: সভাপতি, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (একাংশ) (prothom-alo.com)
জেগে উঠুন কালো আইনের বিরুদ্ধে: শওকত মাহমুদ: সভাপতি, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (একাংশ) (prothom-alo.com)

10.কয়েক টুকরো ভাবনা: প্রফেসর ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল (banglanews24.com)

১. বিদেশী পতাকার পাশে নিজ দেশের পতাকাটা আরও উঁচুতে তুলতে হয়।
২. গৃহকর্মীদের পড়াশোনার সুযোগ করে দেওয়া – জীবন নিয়ে স্বপ্ন দেখার সুযোগ দেওয়া
৩. প্রশ্নপত্র ফাঁস – তদন্ত কমিটির কাছে নিরপেক্ষ প্রতিবেদন প্রত্যাশা ছিল
৪. বিহারীদের দেশের মূলধারায় নিয়ে আশার উদ্যোগ নেওয়া

11.আসুন পথশিশুদের জন্য একটি করে জামা কিনি (banglanews24.com)

12.লাবনী হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবিতে পঞ্চগড়ে মানববন্ধন (banglanews24.com)
– আসামীদের গ্রেপ্তার এবং বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

13.আমরা বাংলাদেশ থেকে অন্যায় অপরাধ দূর করতে কাজ করছি। দেশের মানুষের নিরাপত্তা অনেকখানি বেড়েছে। দুর্নীতি দূর করার লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করছি।

বাংলাদেশ থেকে সমস্ত অন্যায় – অপরাধ দূর করা হবে।

সারা পৃথিবীতে প্রথম মাদকমুক্ত দেশ হবে বাংলাদেশ। (পৃথিবীর একটা দেশ পুরোপুরিভাবে মাদকমুক্ত! ঐ দেশটাতে কোন মাদক নেই! কোন দেশ জানো? তোমার আমার বাংলাদেশ!)

কিছুদিনের মাঝে খাদ্যে ভেজাল বা ফরমালিন অতীতের একটা ব্যাপারে পরিণত হবে। (“দেশের ফলমূলে একসময় ফরমালিন দেওয়া হত!”)

কয়েক বছর আগে পৃথিবীর শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্থ দেশ বাংলাদেশ হবে সম্পূর্ণভাবে দুর্নীতিমুক্ত।

উপরের লক্ষ্যগুলো অর্জনের পর সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে আমাদের মেধাবী মানুষদের প্রয়োজন হবে।
দেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে এবং নতুন প্রজন্মকে গড়ে তুলতে বিদেশে কর্মরত দক্ষ বিজ্ঞানী ইঞ্জিনিয়ার চিকিৎসক এক্সপার্টদের দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।
আমরা তাদের ফান্ডিং, ইনভেস্টমেন্ট নিশ্চিত করবো। আর তারা দেশে নতুন নতুন Industry প্রতিষ্ঠা করবেন। বিশ্বমানের University গড়ে তুলবেন।
গড়ে উঠবে স্বপ্নের আধুনিক উন্নত বাংলাদেশ।

14.দল নয়, বাণিজ্যে বিভোর আ.লীগের নেতাকর্মীরা (prothom-alo.com)
ব্যবসা চাকরিতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা (kalerkantho.com)
ঝিমিয়ে আছে বিএনপি (prothom-alo.com)

আমরা দেশের সব রাজনৈতিক দলকে গণমানুষের কাছে যাওয়ার আহ্বান জানাই।

দেশে গণমানুষকে নিয়ে, গণমানুষের জন্য রাজনীতি করে এমন দল বহু বছর ছিল না বলে – বর্তমান রাজনৈতিক দলগুলো টিকে আছে।
গণমানুষের দল থাকলে বড় বড় দলগুলোও অস্তিত্ব সংকটে পড়ত।

রাজনৈতিক দলগুলোর শীর্ষ নেতৃত্ব এক এক এলাকায় জনগণের উপর নির্ভর না করে শুধুমাত্র একজন নেতার উপর নির্ভর করেন। সেই একজন নেতা সন্ত্রাসীদের গডফাদার বা দুর্নীতিবাজ হলে আরও ভালো – কালো টাকা, পেশি শক্তির কদর বেশি।

দেশে এমন একটা তামাশার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পরও বিএনপি জনগণকে মাঠে নামাতে পারছে না। বিএনপি কি জনগণের জন্য কাজ করে? মানুষ কেন ঝুঁকি নিয়ে আন্দোলনে নামবে?
নারায়ণগঞ্জ, ফেনীতে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জামানত হারাবেন।
যে ৩০ লক্ষাধিক বিনিয়োগকারীকে পথে বসিয়ে আওয়ামী লীগ নেতারা অর্থের পাহাড় গড়েছেন, তাদের একটা ভোট ও আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ পাবে না।

গণমানুষের কাছে না গেলে বড় বড় কয়েকটি দল নিকট ভবিষ্যতে অস্তিত্ব সংকটে পড়বে।

15.দেশের ব্যাংকিং খাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে অগ্রগতি

সোলায়মান খান সাত দিনের রিমান্ডে (samakal.net)

“১৪০ কোটি টাকা আত্নসাতের গুরুতর অভিযোগে মামলা হয়েছে।”

16.মানব পাচারের তালিকায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও (samakal.net)
– মানব পাচারে জড়িত ঘৃণ্য অপরাধীদের বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

17.জাকির বাহিনীর চাঁদাবাজি (jugantor.com)
– জাকির বাহিনীর বিরুদ্ধে অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s