প্রিন্সেস শামিতা তাহসিনকে লেখা চিঠি – ১৬

“The World ends with Him”

প্রিন্সেস, আজকে আমরা কথা বলবো অন্য ব্যাপার নিয়ে – ধর্ম, সৃষ্টি, স্রষ্টা।


Jews -দের বিশ্বাসগুলোর গুরুত্বপূর্ণ একটা হল – Messiah -তে বিশ্বাস।
পৃথিবীর শেষ দিকে একজন Messiah [1] আসবেন – সারা পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠিত করবেন, সমস্ত অন্যায় – অবিচার অন্ধকারগুলো দূর করবেন, সব সমস্যার সমাধান করবেন, সারা পৃথিবীর সবার মাঝে Unity নিয়ে আসবেন। সারা পৃথিবীর Leaders রা guidance এর জন্য তার কাছে যাবেন।  


Jesus কে Friday দুপুরে crucify করা হয়।
Crucify করার কদিন পর Resurrection হয় – Jesus পৃথিবীতে তার Apostle দের মাঝে ফিরে আসেন।
Jesus তার Apostle দের বলে গিয়েছিলেন, একটা সময় পর আবার তিনি পৃথিবীতে ফিরে আসবেন। পৃথিবীতে শান্তি নিয়ে আসবেন। ফিরে আসা পর্যন্ত তার বাণীগুলো প্রচারের দায়িত্ব Apostle দের।
Jesus ফিরে এলে তারা কি sign দেখে Jesus কে identify করবেন – তাও বলে যান।
Jesus এর কপালে বিশেষ sign ছিল।
তিনি বলে যান, দ্বিতীয়বার যখন ফিরে আসবেন – একই sign কপালে থাকবে। 




তারপর Jesus স্রষ্টার কাছে ফিরে যান।
Apostle রা সারা পৃথিবীতে Jesus এর বানীগুলো প্রচার করেন। (আমরা বাণীগুলো জানি New Testament এর Gospel হিসেবে।)

সারা  পৃথিবীতে Church স্থাপন করেন।
Jesus কে ওরা বলে Jesus Christ (Christ মানে Messiah)।


তারপর ২০০০ বছর কেটে গেছে।


২০১১ সালের শেষ দিকে Fort Lauderdale / Wilton Manors (Florida) র রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল একজন।
তাকে দেখে Church এর Father চমকে উঠলেন!

ওর কপালে বিশেষ কিছু আছে! 
তিনি ফিরে গিয়ে pray করতে বসলেন – Lord, আমি যা দেখেছি, তা কি ঠিক? ২০০০ বছর তোমার জন্য অপেক্ষা করছি – তুমি কি ফিরে এসেছ?

অন্যরা এসে verify করলেন।
ও-ই সেই!


২০০০ বছরের প্রতীক্ষার অবসান হয়েছে। Jesus পৃথিবীতে ফিরে এসেছে!


তারপর – শুধু ওর কপালে চিহ্নটা দেখতেই অনেকে আসতো!


স্রষ্টার কি অদ্ভুত পরিকল্পনা!
সেসময় ভিন্ন কয়েকটা ধর্মের অনুসারী ওর মাঝে বিশেষ sign দেখল – ঐ ধর্মগুলোতে Eschatological figure [10] হিসেবে যার কথা আছে – ও সে!


২০১২ সালে ঢাকায় “Digital World” [5] এ ও গিয়েছিল।
ওখানে Mr. Aditya নামে Indian American একজন এসেছিলেন। তিনি Cloud Computing Seminar এ নিজের presentation দিলেন CARMA framework এর উপর (KARMA বা কর্ম বা কর্মফল থেকে CARMA).
ও যখন Mr. Aditya র সাথে কথা বলতে গেলো, CARMA-র কথা উঠতেই Mr. Aditya বললেন, তার লেখা একটা Paper এর title এর আদ্যক্ষরগুলো নিলে হয় – “BRAHMA”.
Mr. Aditya ছেলেটাকে আরও বললেন, তুমি Buddhaর মত একজন হতে পারো। ব্যাপারটা ভেবে দেখো – সবাই তোমাকে Follow করবে।

 
ওকে দেখতে Buddhist রাও আসতো – Chittagong (Bangladesh) এ।
2013 এ অ্যামেরিকা আসার পথে মুম্বাই এয়ারপোর্টে (India) যাত্রা বিরতি ছিল – ওখানেও Dalai Lama-র Representatives -রা এসেছিল।

ওরা বলছিল, বর্তমান Dalai Lama [6] (His Holiness the 14th Dalai Lama) বলেছেন, পরবর্তী Dalai Lama আসবেন বাংলাদেশ থেকে।
Dalai Lama হল তিব্বতিদের ধর্মগুরু (Spiritual Leader)
যা বোঝা গেল, তা হল ওরা চায় Tibet এ আসুক।
 
পরবর্তীতে ও জেনেছিল, ই সেই Long awaited “Maitreya” [7]যার কথা Buddha বলেছিলেন।
আর বর্তমান Dalai Lama বিস্ময় প্রকাশ করেন ওর জন্ম একটা Muslim পরিবারে হল!
 
এভাবে ও সারা পৃথিবীর 1.2 Billion Catholic দের আর Tibetan Buddhists দের Leader হওয়ার জন্য destined. ও চাইলে Vatican [8] [9] এ গিয়ে Roman Catholic Church র দায়িত্ব নিতে পারে অথবা Tibet এ গিয়ে Tibetan Buddhist দের দায়িত্ব নিতে পারে।

St. Peter’s Square, the basilica and obelisk, from Piazza Pio XII

 

A panorama of the gardens from atop St. Peter’s Basilica

এমন আরও কিছু পদ আছে। যেমন – Iran Ayatollah রা [11]অপেক্ষা করছে Imam Mahdi র জন্য। Imam Mahdi পৃথিবীতে এলে তিনিই হবেন Iran Supreme Leader.

 
সৃষ্টিকর্তা ওকে নিয়ে অদ্ভুতভাবে প্ল্যান করেছেন।
মুসলিম পরিবারে ওর জন্ম, কিন্তু ও America President হতে পারে (ওর জন্ম Friday তে Jumu’ah র নামাজের ঠিক পর পর; কিন্তু July 4)
ওর জন্মে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার ইঙ্গিত।
পৃথিবীর সবচেয়ে widespread কয়েকটা ধর্মের কাছে ও পৃথিবীর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ওর কথা ওসব ধর্মের সমস্ত অনুসারী শোনে। কিন্তু সৃষ্টিকর্তা ওকে জ্ঞান দিয়েছেন। ও ধর্ম নিয়ে কারও উপর কিছু চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবে না (ভুল করলে ঠিকটা দেখিয়ে দেবে কিন্তু নিজের ধারণা যুক্তি ছাড়া চাপিয়ে দেবে না।)Science যেমন ছেলেটার কাছে যুক্তির ভিত্তির (Logical Edifice) উপর প্রতিষ্ঠিত, একইভাবে Spiritual ব্যাপারগুলো ওর কাছে যুক্তি দিয়ে প্রতিষ্ঠিত (Logical Edifice)Spiritual ব্যাপারগুলোকে সে Science র একটা extension হিসেবে দেখে সৃষ্টিকর্তা ওর জন্য Super natural ব্যাপারগুলো শেখার ব্যবস্থা করেছেন।  



আমাদের দেশের কয়েকজন সুফি ওদের কাছে শ্রদ্ধেয় একজন সুফির কাছে গিয়ে বললেন – ও কে দেখে দেন তো। 

সেই শ্রদ্ধেয় সুফি Divine Realm থেকে জেনে বললেন, ও Imam Mahdi [12]

এটা ২০১২ র সময়কার কথা। তখন ওরা আশা করতেন একদিন ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হবে।

জানতে চাইলেন, ও কি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হবে?

শ্রদ্ধেয় সুফি Divine Realm থেকে জেনে বললেন, শুধু বাংলাদেশ না, পুরো Indian subcontinent ও Rule করবে। ওর Empire Indian subcontinent ছাড়িয়ে বিস্তৃত হবে। 

“He will rule over vast regions on Earth.” – “পৃথিবীর অনেক বড় জায়গা ও শাসন করবে।”

আর “The World ends with Him” – “মহাবিশ্বের অন্তিম পরিণতি ওর মাধ্যমেই।”

 

Sufism হল Islam ধর্মের Mysticism practice করে এমন একটা শাখা।

Mysticism কি জানতে চাও?
Scientist, Philosopher আর Mystic – প্রত্যেকে জগতকে কিভাবে বোঝেন – তা থেকে আমরা Mysticism বোঝার চেষ্টা করি।


বিজ্ঞানীরা Experiment, Observation, Induction, Deduction ব্যবহার করে জগতকে জানেন। 
Induction হল Experimentর Data দেখে একটা Generalization (একটা Law) এ আসা। 

আর Deduction হল একটা Law কে সত্য ধরে নিয়ে যুক্তি দিয়ে নতুন নতুন সত্য আবিষ্কার করা (গণিতের ক্ষেত্রে Mathematical Derivation)।

ধর, Newton Gravity নিয়ে অনেক Experiment করে
F = (G* m1 * m2) / d^2
এই Law আবিষ্কার করলেন। এটা Induction.
আবার Law of Gravity থেকে Mathematically অনেক কিছু deduce করা যায়। যেমন G = (F * d^2) / (m1 * m2) – এটা Deduction


Philosopher রা “ভেবে” জগতকে বোঝার চেষ্টা করেন।

আর Mystic রা জগতের সবকিছুকে Divinity বা স্রষ্টার মাধ্যমে বোঝার চেষ্টা করেন।
Mystic দের practice কে বলে Mysticism.
গুরুত্বপূর্ণ  প্রায় সব ধর্মেই Mystic branch রয়েছে।
Islam এ যেমন Sufism [2] – Hinduism এ আছে Yoga [3], Tantra, আবার Jew দের আছে Kabbalah [4].


আজকের গল্প এটুকুই!

সেই “একজন”টা আমি!

[7/30/14]
[Edited: 10/20/14]

2.

KARMA, BRAHMA-র কথা (ও-ই যে ঢাকায় Digital World) বলছিলাম না?

Indian Mystics রা আমার কথা কিভাবে জেনেছে জানো?

Eastern Mysticism -এ কিছু Branches-র বিশ্বাস, পৃথিবীতে যে কোন সময়ে ঠিক একজন মানুষ থাকেন – Spiritually যিনি সবচেয়ে advanced. তাকে পৃথিবীর খুঁটি হিসেবে ধরা হয়। তিনি হলেন সেই সময়ের জন্য পৃথিবীর সব Mystic-দের গুরু।

Indian Mystic-রা জানতে চেয়েছিল, বর্তমান সময়ে সেই মানুষটা কে?

তখন Spiritual Realm থেকে আমার কথা জেনেছিল।

[04.14.15] 

References

  1. Jewish messianism
  2. Sufism
  3. Yoga
  4. Kabbalah
  5. Digital World 2012 
  6. His Holiness the 14th Dalai Lama (the spiritual leader of the Tibetan people) 
  7. Maitreya 
  8. Vatican City State 
  9. Vatican City 
  10. A Comparative Study Of Major World Religions 
  11. Ayatollah 
  12. Mahdi

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s