আজকের উপলব্ধিতে বাংলাদেশ (04.10.14)

1. রাজনীতি – দেশজুড়ে

“দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলোও মাঠ পর্যায়ে জোটগত কোনো তৎপরতা নেই ১৪ দলের। নিজেদের অবস্থান থেকেও মাঠের রাজনীতিতে নেই এ জোটের শরিকরা। মাঠের রাজনীতিতে নিস্ক্রিয় রয়েছে এই দলগুলো। “


2. Others

“ঈদুল আজহা ও দুর্গাপূজার আগে প্রবাসী বাংলাদেশিরা তাদের আত্মীয়স্বজনের কাছে বিপুল পরিমাণ রেমিটেন্স বা প্রবাসী-আয় পাঠিয়েছে। তাই গত সেপ্টেম্বর মাসে দেশে এসেছে মোট ১৩২ কোটি ডলারের সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা।

আগের বছরের একই সময় প্রবাসী-আয় এসেছিল ১০৩ কোটি ডলার। আর চলতি বছরের আগস্ট মাসে প্রবাসী-আয় আসে ১১৭ কোটি ডলার। এ হিসাবে আগের মাস কিংবা আগের বছরের একই মাসের তুলনায় প্রবাসী-আয় বেড়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে মোট ৩৯৮ কোটি ডলারের সমপরিমাণ ​রেমিটেন্স প্রবাসীরা দেশে পাঠিয়েছেন। আগের অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে প্রবাসীরা পাঠান ৩২৭ কোটি ডলার। ফলে আগের অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় এবার প্রবাসীরা ৭১ কোটি ডলার বা ২১ দশমিক ৭১ শতাংশ বেশি রেমিটেন্স দেশে পাঠিয়েছেন।

“ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিচ্ছে সুইডেন। দেশটির পার্লামেন্টের উদ্বোধনী ভাষণে নতুন ক্ষমতায় আসা মধ্য বামপন্থী সরকারের প্রধানমন্ত্রী স্টিফান লোভেন শুক্রবার এ কথা জানিয়েছেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, একমাত্র দ্বি-রাষ্ট্রিক সমাধানই ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যকার দ্বন্দ্বের অবসান ঘটাতে পারে।’ আন্তর্জাতিক আইন অনুসারেই সেটি করতে হবে বলেও উল্লেখ করেন লোভেন।
স্টিফান লোভেনের এ কথা সত্য হলে সুইডেনই হবে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) প্রথম রাষ্ট্র যা ফিলিস্তিনিদের দীর্ঘদিনের দাবির প্রতি সমর্থন জানাবে। এর আগে ইউরোপের হাঙ্গেরি, পোল্যান্ড ও স্লোভাকিয়া ফিলিস্তিনকে সমর্থন দেয়। কিন্তু সেটা ইউরোপীয় ইউনিয়নে যোগ দেওয়ার আগে।
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ২০১২ সালে ফিলিস্তিনকে সমর্থন দেওয়া হয়।”

 

“মান নির্ধারণী পরীক্ষার প্রথম প্রচলন হয় চীনে, যখন সরকারি চাকরিপ্রার্থীদের কনফুশিয়াসের দর্শন ও কবিতার পারদর্শিতার পরিচয় দিয়ে যোগ্যতা অর্জন করতে হতো। পশ্চিমা দেশগুলো মূলত সক্রেটিসের ধারাবাহিকতায় বিভিন্ন বিষয়ে রচনা লেখার মাধ্যমে সম্ভাব্য চাকরিজীবীদের মেধা যাচাই করত। ঊনবিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে শিল্পবিপ্লবের সময় যখন ব্যাপক হারে চাকরি সৃষ্টি হয়, তখন একসঙ্গে অনেক ছাত্রের মেধা যাচাইয়ে মান নির্ধারণী পরীক্ষা নেওয়া  হয়।
দক্ষ ও প্রশিক্ষিত শিক্ষকের অভাবে নোট এবং শিক্ষক নির্ধারিত উত্তরের বাইরে কোনো কিছু শেখার বা বিশ্লেষণ করার ক্ষমতা হারাচ্ছে আমাদের ছাত্ররা। 
আমরা আমাদের ছেলেমেয়েদের শিক্ষা নিয়ে বড় রকমের পদ্ধতিগত ভুল করছি।”
 
প্রতি ঈদে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা সেতু থেকে ময়নামতি ক্যান্টনমেন্ট পর্যন্ত তীব্র যানজট দেখা দিলেও ৪ অক্টোবর শনিবার যানজটের চিহ্নও লক্ষ্য করা যায়নি।

এ প্রসঙ্গে দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সালাম মিয়া বলেন, দাউদকান্দি অংশে যাতে কোন প্রকার যানজট সৃষ্টি হতে না পারে সেজন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশ ও দাউদকান্দি থানা পুলিশ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করছে, বিধায় এ মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখা সম্ভব হচ্ছে। – See more at: http://www.banglanews24.com/beta/fullnews/bn/329921.html#sthash.WJMHhgBz.dpuf

P { margin-bottom: 0.08in; }

“প্রতি ঈদে ঢাকাচট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা সেতু থেকে ময়নামতি ক্যান্টনমেন্ট পর্যন্ত তীব্র যানজট দেখা দিলেও ৪ অক্টোবর শনিবার যানজটের চিহ্নও লক্ষ্য করা যায়নি।
এ প্রসঙ্গে দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সালাম মিয়া বলেন, দাউদকান্দি অংশে যাতে কোন প্রকার যানজট সৃষ্টি হতে না পারে সেজন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশ ও দাউদকান্দি থানা পুলিশ ঢাকাচট্টগ্রাম মহাসড়কে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করছে, বিধায় এ মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখা সম্ভব হচ্ছে।”
 

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s