আলোচনা সভা – সমাবেশ – উদ্যোগ [29.11.14]

আলোচনা সভা – সমাবেশ – উদ্যোগ



 














বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর (অব) আবদুল মান্নান

“দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করতে জাতীয় ঐক্যের আহ্বান জানিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। গতকাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নাগরিক ঐক্য আয়োজিত দুর্নীতিবিরোধী অবস্থান কর্মসূচিতে তিনি এ আহ্বান জানান। কর্মসূচিতে সংহতি প্রকাশ করেন ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ, কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফর উল্লাহ চৌধুরী, সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক, অধ্যাপক আসিফ নজরুল, স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন, সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রুহিন হোসেন প্রিন্স, বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) এম এ মান্নানসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। দুর্নীতিবিরোধী এ অবস্থান কর্মসূচি সমাবেশে রূপ নেয়। 

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, রাজনীতিকে যারা কলুষিত করেন তারাও দুর্নীতিবাজ।ডা. জাফর উল্লাহ চৌধুরী বলেন, দেশে গণতন্ত্রের নামে ভাঁওতাবাজি করা হয়। এখানে গণতন্ত্রের জন্য নির্বাচন হয় না। সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, স্বাধীনতার পর থেকেই দুর্নীতির মহরত শুরু হয়েছে। আমাদের সব উন্নয়ন দুর্নীতির কারণে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ বলেন, এমন কোনো জায়গা নেই যেখানে টাকা ছাড়া কাজ হয়। যে স্বপ্ন নিয়ে মুক্তিযোদ্ধারা দেশ স্বাধীন করেছিলেন তা নষ্ট হয়ে গেছে। স্বাধীনতার পর যাদের কাছে সবচেয়ে বেশি প্রত্যাশা ছিল জনগণ তাদের কাছেই বেশি আঘাত পেয়েছে। ড. শাহদীন মালিক বলেন, ‘এই দেশে পানি পেতেও ঘুষ দিতে হয়। সব প্রতিষ্ঠান এখন দুর্নীতির কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে।’ অধ্যাপক আসিফ নজরুল বলেন, সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতি প্রবেশ করেছে। সার্টিফিকেটে দুর্নীতি, প্রশ্নপত্রে দুর্নীতি, নির্বাচনী দুর্নীতি নতুন মাত্রা যোগ করেছে।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জেএসডি সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, বিকল্পধারার কোষাধ্যক্ষ আলী জাফর প্রমুখ। কর্মসূচিতে কিশোরগঞ্জ, সাভার, নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকার বিভিন্ন থানা থেকে নাগরিক ঐক্যের নেতাকর্মীরা অংশ নেন। এছাড়া বাংলাদেশ স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার, দুর্নীতি প্রতিরোধ আন্দোলন, দেশপ্রেমিক নাগরিক পার্টিসহ বিভিন্ন শ্রমিক ইউনিয়ন ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে যোগ দেন।”






 

“পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ঐক্য ন্যাপের সভাপতি পঙ্কজ ভট্টাচার্য, জনসংহতি সমিতির সহসভাপতি ও সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার, কেন্দ্রীয় নেতা দীপায়ন খিসা এবং রাজশাহীর আদিবাসী নেতা রবীন্দ্রনাথ সরেন। উপস্থিত ঐক্য ন্যাপের সভাপতি এবং রাজশাহী আদিবাসী নেতা রবীন্দ্রনাথসহ অন্যরা অসহযোগ আন্দোলনে সমর্থন জানান।” 




“‘ডেফোডিল ইন্টারনেশনাল ইউনিভার্সিটি’র স্থায়ী ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত ১৭তম কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে চিফ পেট্রন হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন, বিশ্ববিদ্যালয়েটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান নাগরিক ঐক্যের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সবুর খান।”

 

 

 
“একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, লেখক ও সাংবাদিক শাহরিয়ার কবিরের সভাপতিত্বে ২৬ নভেম্বর জেনেভার স্থানীয় এক রেস্টুরেন্টে এক সভায় এ কমিটি গঠনের ঘোষণা দেওয়া হয়।”

 

 
 
 
 
 

“বিএনপি দেউলিয়া হয়ে গেছে, তাদের এখন রাজনৈতিক কর্মসূচি’ নেই মন্তব্য করে ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা. 

পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সাধারণ সস্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, সংসদ সদস্য হাজেরা সুলতানা, মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, দলের পলিটব্যুরো সদস্য বিমল বিশ্বাস, কামরুল আহসান, মনোজ সাহা, হাফিজুর রহমান ভুঁইয়া, আমিনুল ইসলাম গোলাপ, সুশান্ত দাস, শফিউদ্দিন আহমেদ, ইকবাল কবির জাহিদ, নুরুল আহমদ বকুল প্রমুখ। “

 

International Relations – Foreign Policy – Diplomacy 

 

“বাংলাদেশকে বাণিজ্য সহায়ক কর ও শুল্কব্যবস্থা প্রবর্তন করতে হবে। বর্তমান ব্যবস্থার আমূল সংস্কার করতে হবে। তাহলে বিদেশি কোম্পানি, বিশেষ করে সুইডেনের কোম্পানিগুলো এ দেশে বিনিয়োগে উৎসাহী হবে। বর্তমানে উচ্চ কর হার এবং জটিল ও দীর্ঘসূত্রতার শুল্কায়ন প্রক্রিয়ার করণে কাঙ্ক্ষিত বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে পারছে না বাংলাদেশ।”

 

“আমরা সাশ্রয়ী গ্যাসভিত্তিক সার কারখানা স্থাপনের বিষয়ে বলেছি। আমরা কাফকোয় নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহ পেতে সহযোগিতা কামনা করেছি।” 

তরুণ প্রজন্ম

 

বাংলাদেশের বিজ্ঞান আন্দোলনের দুই ব্যক্তিত্ব ড. আ মু জহুরুল হক ও ড. আবদুল্লাহ আল মুতী শরফুদ্দিন স্মরণে স্মারক বক্তৃতামালার আয়োজন করে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি। 
অনুষ্ঠানে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তড়িৎ ও কম্পিউটার কৌশল বিভাগের সহকারি অধ্যাপক ড. নোভা আহমেদ তার বক্তৃতায় শিশু কিশোরদের জন্য প্রোগ্রামিং-এর জগৎ তুলে ধরেন।
এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের নিয়ে সম্পূর্ণ বাংলাভাষায় একটি প্রোগ্রামিং স্ক্রিপ্টিং ভাষা চালু করেছেন বলে জানান। “চা স্ক্রিপ্ট” নামের এই প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজে সাধারণ বাংলা ভাষায় প্রোগ্রামিং-এ নির্দেশনা ও প্রোগ্রাম লেখা যায়।
নোভা আহমেদ বলেন, আগামী দিনগুলোতে বিশ্বব্যাপী সৃজনশীল কাজের পরিমাণ বহুগুন বেড়ে যাবে।


বক্তৃতামালার অপর বক্তা ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যাথলজি বিভাগের রেসিডেন্ট ডা. সৌমিত্র চক্রবর্তী। ডা. চক্রবর্তী তার “জেনেটিক্সের ওপারে” শীর্ষক বক্তৃতায় এপিজেনেটিক্সের সাম্প্রতিক প্রবণতা এবং বৈশিষ্ট্য সমূহ তুলে ধরেন এবং দেশে এ বিষয় নিয়ে গবেষণার বিভিন্ন দিক সম্পর্কেও জানান। প্রশ্নোত্তর পর্বে ডা. চক্রবর্তী জানান পরীক্ষাগারের অংশ ছাড়াও এই গবেষণার তাত্ত্বিক ও প্রায়োগিক অংশ রয়েছে যা তারা বাংলাদেশেই করছেন। 


বক্তৃতামালার শুরুতে বিজ্ঞান ব্যক্তিত্ব জহুরুল হক ও আবদুল্লাহ আল-মুতীর জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা করেন আহসানিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির পরিচালক সৈয়দ জিয়াউল হক। সভাপতির বক্তব্য দেন অধ্যাপক এ আর খান। 


৫ম বারের মত আযোজিত এই বার্ষিক বক্তৃতামালা অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি সহ-সভাপতি মুনির হাসান।”






Large Scale Engineering


“এন প্লাস২ নামে সুপারসনিক যাত্রীবাহী এ প্লেনের নকশা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান লকহেড মার্টিন।

প্রতিষ্ঠানটির দাবি, প্রচলিত যাত্রীবাহী প্লেনের তুলনায় এটি দ্বিগুণ গতিতে চলবে। এর গতিবেগ হবে ঘণ্টায় এক হাজার দুইশ’ মাইল।”

“প্রস্তাব বাস্তবায়িত হলে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন অঙ্গরাজ্যের রেডমন্ডে ৫০০ একরজুড়ে বিস্তৃত ওই এলাকায় জ্বালানি সাশ্রয়ের পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানের সার্বিক খরচ কমে আসবে। 

স্মিথ বলেন, স্মার্ট ভবনগুলো হবে একেকটি স্মার্ট শহরের মতো। আর স্মার্ট শহরগুলো বদলে দেবে সবকিছু।”

 
Business & Economy
একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার

“শাখাওয়াত হোসেন ১৯৯১ সালে জামায়াতে ইসলামীর পক্ষে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে যশোর-৬ (কেশবপুর) আসন থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন।
একাত্তরে দখলদার পাকবাহিনীর দোসর রাজাকার বাহিনীর কমান্ডার হিসেবে তিনি এলাকায় দায়িত্ব পালন করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। ২০০৯ সালে যশোরে শাখাওয়াতের বিরুদ্ধে একাত্তরে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে চারটি মামলা হয়। ওই বছর জুন মাসে তাঁকে কেশবপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তিনি জামিনে ছাড়া পান।”

Law Enforcement
  • Human Trafficking Control 
  • Drug Trafficking Control 
  • Illegal Possession of Arms 
  • Gold Smuggling

“মাদকমুক্ত বাংলাদেশ” গড়ার পথে অগ্রগতি

বাংলাদেশ মাদকমুক্ত হওয়ার পথে।
বাংলাদেশের নাগরিকদের দেশ নিয়ে গর্ব করার মত অর্জনের ভান্ডারে আরেকটা অর্জন কিছুদিন পর যোগ হবে।
বাংলাদেশ হবে পৃথিবীর প্রথম অবৈধ মাদকমুক্ত দেশ।

ভেজাল খাদ্য এবং ফরমালিন মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলায় অগ্রগতি
 

Anti-Corruption Initiatives
 

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s