Personal Notes On Creativity [Unofficial]

  • Look at everything with fresh eyes. Don’t accept things / concepts / tools / theories as they are. Ask how different could they be. Dare to challenge common wisdom and question authority.
  • “In school, you’re trained to incorporate information according to reflex—to pigeon-hole it into general categories. And people tend to carry this habit over into daily life…. No politician is a staunch Democrat or Republican on all the issues. But we pigeonhole them—and all the other information we encounter in our daily lives—because it is a convenient way of organizing tremendous amounts of information from our external environment. When you are thinking creatively, you open the door between these individual pigeon holes that you customarily use and allow your acquired information to intermix freely. Only by doing this can you begin to see new connections between discrete bodies of knowledge and come up with whole new ways of looking at the world. Everything relates to everything else, in some way. Although compartmentalizing information, people, and ideas is often useful when you’re trying to organize the information that floods into your life from TV, books, conversations, and observations, it nevertheless tends to limit your perspective and possibilities. Breaking down those compartment walls opens up those possibilities, and lets you see the world in whole new ways.” [1] 
  • Revolutionary idea in one field usually comes from another field. Otherwise, if the idea was already in the field, it would not have been revolutionary. From this perspective, it’s very important to have breadth in knowledge / interest in a variety of fields. But then, once you have borrowed a great idea from a different field, you need depth in your field to express the idea in the language of your field. 
  • Try to find creative solutions for everyday problems. 
    • Better / more efficient / more effective way of doing things.
      • Example: Feynman 
    • Learn from “design of everyday things”. Can you design it better? (New/improved tech/app/devices/machines, shortcuts) 
  • When analyzing a device / software / system, break it into individual pieces / constituent parts. Anything can be added? Removed? Used as part of another device / software / system? 
    • But remember – a system is more than the sum of its parts. Focus on interconnections of different parts. 
    • When you break a system into its constituent parts you can switch any of the parts with another part.
  • Don’t be satisfied by just saying “it happens”. Find out why and how it happens.
  • Don’t constrain yourself to a particular subject area or a particular body of knowledge. Break open the man-created walls that separate different areas of knowledge. Constraining ourselves to a particular field of study limits our abilities of finding solutions (to problems) that span across multiple disciplines.



References

Healthcare Reform

The initiative to make sure more people get health-care insurance coverage – the Affordable Care Act, popularly known as the Obama-care, should be seen as positive. 


Ensuring health-care of citizens is a duty of the government. Who else will come forward to take the responsibility of ensuring healthcare of citizens who need it most?

But why do we have so little enrollment? One reason is surely the failure of the website to respond. With the best and brightest Software Engineers in our country, it can’t be a big problem.

Are there other reasons? It’s a new system all together. Is the website too difficult to navigate and use, especially to the people (who are economically lagging and thus technologically lagging) for whom the whole reform is targeted? Why don’t we educate people on how to use the site? We can extend the time of getting insured in the marketplace and let people spend more time to familiarize themselves with the new system.

We can make necessary changes so that those who want to keep their previous insurances can do so.

It’s a new system – we have to solve problems as we face them along the way.

In the meantime, we can come up with creative solutions that solve problems our health-care system face, solutions that minimize costs but are still more effective and reach more people. American Healthcare System is under-performing and a lot more expensive compared to other developed countries.

Why not prioritize disease prevention programs and motivational programs that encourage healthy lifestyle choices so that we have less sick people to start with? Obesity and poor lifestyle choices are surely among causes of diseases. Less sick people translates into less visits to doctors and less visits to doctors translate into less health insurance prices. If health insurance prices go down, more people would have health insurances.

Let’s try to understand it through an example.

Suppose, visits to doctor cost a person say, “A” $100 a month and another person say, “B” $50 a month. Now, the insurance company that sells healthcare insurances to “A” and “B”, sells each of the monthly insurances for $80. So, “A” and “B” together spend $80 + $80 = $160 to buy their insurances and the insurance company has to spend $100 + $50 = $150 to bear the cost of visits to doctor. Now, suppose “A” and “B” learned to take better care of their health. As a result, they have monthly healthcare costs of $60 and $40 respectively. Now, the insurance company has no way but to reduce their insurance fees. Thus, by taking better care of their health, “A” and “B” forced the insurance companies to reduce prices for insurance.


There can be so many different solutions to different inter-related problems if only we are wise enough to “define” the “problem” we want to solve creatively!

How Artists, Architects, Designers, Musicians, Singers and Writers Work

Artists, Architects, Designers

Artists, Designers, Architects break things up into components, parts, colors; change parts, components, colors for learning / exploration; and find out what happens when parts of the whole are changed, replaced by other parts, colors. They find out what makes something beautiful. They try to figure out features that make a product usable (from the customer’s point of view). They look at things around them with fresh eyes and continuously pose questions to themselves – “What makes this design beautiful or ugly?” “What features make this product usable or unusable? ” and try to figure out the answers. They change their point of view and view things from different angles.

Musicians & Singers

Musicians “see” music. What we hear as music for 15 or 30 seconds, musicians can see the whole music at a glance. (I am beginning to see music as shapes!)
Singers on the other hand have to concentrate on split-second changes in voice, tone and pitch and sing accordingly.

Writers


Most organized novelists make a high level plot first, and then write successively more detailed narrations, where each newer level of narration expands its immediate higher level. They go back and change the condensed higher level plots when necessary though.

My Mental Toolbox

Power Tools From My Mental Toolbox

Self Management

  • Passion & Confidence, Faith. “The happiness advantage”.
    • Go through your accomplishments. Visualize. 
    • Always have context (Goal, Dream, Curiosity, Context) in mind. 
  • Meta-cognition (“Know thyself”). Reflective Thinking. Self awareness.
  • Emotional Intelligence
  • Concentration. Meditation. Mindfulness (Reflective Thinking). Classical Music.
  • Killer instinct directed towards problem solving, creative purposes and accomplishments. See Steve Ballmer on stage. People who can’t use anger / aggression towards creative purposes / problem solving, “transfer the anger to his wife, children, subordinates, store clerks, waiters and other people who cannot defend them against him. This is the mechanism that lies behind scapegoating, racial prejudice, exploiting others.” [1] 
  • Willpower (Mindfulness). 
  • Big Picture Thinking. 
  • Collaboration
  • Creative Visualization (Always have goals in your mind. Start from goal – visualize backwards.) + Faith
  • Gamify the process of achieving goals. (Let internal feedback motivate you. Use feedback to your advantage.) 
  • Awareness of the ultimate reality.

Thinking Tools 

  • Learning and understanding by developing models, knowledge ontologies, organized knowledge in context (e.g., understanding how a tool works in context of the problem it tries to solve)
    • Study the problem, not the tool. Design the best possible tool that solves the problem; and then study the available tool.
    • Learn in context. Always have past, future, goals, contexts, questions in mind. 
  • Systems thinking
  • Zooming-in, zooming-out (let’s name it the “lens tool”)
    • Find out how changes made to “part” bring about change in the “whole”.
    • Move up and down between different levels of abstractions. Breakthrough idea could be at any level. (Creativity, Problem Solving)
  • Abstractions (from computational thinking)
  • Generalization
  • Chunking
  • Sequential Processes
  • Game Theory (Considering the opponents, co-operators)
    • Studying the psychology of everyone involved.
    • Big Picture Thinking.  
  • Visualization, Structures
  • Not constraining myself to a particular field of study; rather, analyzing and learning from everything. My breadth of knowledge helped me go in depth. 
  • Crossing my own limits by challenging myself
  • Problem Solving Strategies, Tools, Techniques 
  • Creativity Tools
  • Understanding systems and processes “completely” in terms of what I already know (what Physicists try to do)
  • Ask Questions. (Fill up gaps in knowledge. Meta-thinking. Questions lead to answers and new knowledge.)
  • Mathematics (reduces complexity by creation of abstractions, symbolization, structures, mechanization of procedures)
  • Data Analytics & Statistics
  • Algorithm, Computation & Automation
  • Larger Working Memory


Reference

প্রিন্সেস শামিতা তাহসিনকে লেখা খোলা চিঠি – ১

 

শামিতা, প্রিন্সেস, অ্যাই তুমি ডিজাইন নিয়ে ভাবতে পারো, ভাবনাটা আঁকতেও পারো।

Fresh eyes দিয়ে সবকিছু দেখো। ধর, একটা টেবল দেখছ। সবাই যে চোখে টেবল টাকে দেখে সেভাবে দেখলে তুমি নিজে টেবল ডিজাইন করবে কিভাবে? বরং একটা বাচ্চা যে চোখ দিয়ে টেবল টাকে দেখে, বা ধর তুমি মঙ্গল গ্রহে গেছ – সেখানকার একটা অদ্ভুত টেবল যে দৃষ্টি দিয়ে দেখবে সেই দৃষ্টিতে দেখো।

ওয়াও! কেমন অদ্ভুত একটা জিনিস! চারটা পায়ের উপর দাঁড়িয়ে। ওভাল সাইজের। সবাই মিলে এটার উপর খায়? ওভাল না হয়ে রেকটেঙ্গুলার হলে কেমন হত? আরেকটু ছোট হলে? রঙটা কেমন যেন! আরেকটু বাদামি হলে… হুম, দারুন হত।

একটা exercise দেই। একটা E-Book 2.0 ডিজাইন করতে পারবে? স্পেসিফিকেইশান বলে দেই। ফাঙ্কশানালিটি হবে E-Book Reader, Tablet এর মত, কিন্তু বই পড়তে যে সুবিধাগুলো পাওয়া যায় – যেমন ধর কয়েকটা পাতা একসাথে খোলা রাখা, দ্রুত এক পাতা থেকে আরেক পাতায় যাওয়ার সুবিধা, ওজনে হালকা, তারপর ধর কোন পাতায় চাইলে কিছু নোট করে, মার্ক করে রাখা যাবে – ওগুলো থাকতে হবে। চিন্তা করার সময় কোন constraint রেখো না – নতুন কি আনা যায় ভাবো। যেমন ধর, iPhone multi-touch screen introduce করেছে। User Interface এ নতুন আর কি থাকতে পারে ভাবো।
ট্রাই করে দেখো। ডিজাইনের কিন্তু কোন শেষ নাই। একটা ডিজাইন দাঁড় করাও, তারপর ওটাকে আরও ভাল কর, আবার কিছু যোগ কিছু বাদ – এভাবে।

তোমরা ডিজাইনাররা Multi-touch screen ডিজাইন করে বাচ্চাদের কি শিখিয়েছ দেখো! বাচ্চারা ম্যাগাজিনকেও touch screen ভাবছে!

ওয়েব পেইজ ডিজাইনও ট্রাই করতে পারো। ফটোশপ দিয়ে ডিজাইন কর – ভাল লাগে কিনা দেখো। দেখতে ভাল লাগে – এমন সাইটগুলো কেন দেখতে ভাল লাগছে বোঝার চেষ্টা কর।

সবকিছু নিয়ে ভাব। সবকিছু ভালভাবে বোঝার চেষ্টা কর। কম্পিউটার কিভাবে কাজ করে, ব্যাংক কিভাবে কাজ করে, একটা বাড়ি কোন কোন অংশের জন্য সুন্দর লাগছে – কোন কোন অংশ পাল্টে ফেলে আরও সুন্দর করা যায়।

কোন জটিল ব্যাপার বোঝার সবচেয়ে ভাল উপায়

  • জটিল ব্যাপারটাকে ছোট ছোট অংশে ভাগ করে ফেলা।
  • তারপর ছোট ছোট ব্যাপারগুলো আলাদাভাবে বোঝা।
  • এরপর ছোট ছোট অংশগুলো নিয়ে কিভাবে পুরো ব্যাপারটা কাজ করছে তা বোঝা।
  • সবসময় visualize করে বোঝার চেষ্টা কর। তুমি তো জানো আমি কিভাবে visualize করি। 

ধাঁধার সমস্যা বা অঙ্কের সমস্যা নিয়েও ভাবতে পারো।

প্রথম দিন সব বুঝে ফেলবে এমন না। কিন্তু ভাবতে থাকো – কয়েকদিন পর দেখবে আগের চেয়ে অনেক ভাল ভাবছ।

নিউটনের একটা কথা মনে রেখো, “আমার আবিষ্কারের কারণ আমার প্রতিভা নয়। বহু বছরের পরিস্রম ও নিরবিচ্ছিন্ন চিন্তার ফলেই আমি আমাকে সার্থক করেছি, যা যখন আমার মনের সামনে এসেছে, শুধু তারই মীমাংসায় আমি ব্যস্ত থাকতাম। অস্পষ্টতা থেকে ধীরে ধীরে স্পষ্টতার মধ্যে উপস্থিত হয়েছি।”

পড়াশোনা, চিন্তা ভাবনার জন্য আমি কিছু Power Tools ব্যবহার করি। তোমাকে শিখিয়ে দেবো। তোমার মাঝে কত Potential লুকিয়ে ছিল – কখনও খেয়াল করনি – অবাক হয়ে দেখবে। Undergrad বেশি বেশি course নিয়ে তাড়াতাড়ি শেষ করে ফেলতে পারবে!

নামাজ পরো। মন প্রাণ দিয়ে সবার জন্য দোয়া কর।

জীবনের সমস্যা নিয়ে ভেবে কখনও মন খারাপ করবে না। বরং ভাববে তোমার কি কি আছে – তা নিয়ে। আমি আছি না? আরও কত কিছু!

আমরা সবাই happy, satisfied, fulfilled হতে চাই। আসলে আমাদের প্রত্যেকের জীবনের মূল লক্ষ্য হওয়া উচিত – নিজে হ্যাপি হওয়া, আর যতগুলো মানুষকে পারা যায় হ্যাপি করা। আমরা মনে করি, অনেক টাকা রোজগার, চাকরিতে ওই পদ, পছন্দ হওয়া ডায়মন্ড সেট কিংবা ওই পুরষ্কারটাই জীবনের লক্ষ্য হওয়া উচিত। কিন্তু আসলে এগুলো লক্ষ্য না। লক্ষ্য হল – এগুলো অর্জনের মাধ্যমে হ্যাপি হওয়া। পুরষ্কার কিংবা পদ happy, satisfied, fulfilled হওয়ার tools, মূল লক্ষ্য না। মূল লক্ষ্য – happiness, satisfaction, fulfillment

কাজেই যেসব ব্যাপার ভাবলে মন খারাপ হয়, ওগুলো ভেবে মন খারাপ করা মানে নিজে নিজে ইচ্ছা করে জীবনে হেরে যাওয়া। গড তোমাকে যে ব্লেসিংসগুলো দিয়েছেন ওগুলো নিয়ে ভাব – কত ভাল লাগবে!

বড় কোন স্বপ্নকে লক্ষ্য হিসেবে নিয়ে তাতে নিজেকে উজাড় করে দাও – জীবনটা অনেক বেশি অর্থপূর্ণ মনে হবে। স্বপ্নের পথে একটু একটু করে এগোনোকে happy হওয়ার tool হিসেবে ব্যবহার কর।

Happiness এর আরেকটা Secret হল Happiness relative। ধর, একটা কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছ – সামান্য একটু স্বস্তি এলে কি যে ভাল লাগবে! আবার ধর প্রতিটা দিনই অনেক মজার। তখন এত মজার মাঝেও bored feel করবে। অনেক অনেক বেশি exciting কিছু না হলে ভাল লাগবে না! এমন সময়ে happy হওয়ার উপায় হল – কঠিন সময়গুলোর কথা ভাবা। Happiness feel করে তারপর সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে ভুলো না!

সবচেয়ে বড় যে সত্যটা বলতে চাইছি তা হল – আমাদের “পারিপার্শ্বিক” আমাদের যতটা না happy বা unhappy করে, তার চেয়ে বেশি করে আমরা “পারিপার্শ্বিক দেখে মনে মনে কি ভাবলাম”।

এই ব্যাপারগুলো তুমি নিজের জীবনেও অ্যাপলাই কর, কাছের মানুষদেরও শেখাতে পারো।

তুমি প্রিন্সেস – তোমাকে রোল মডেল হতে হবে – এটা সবসময় মাথায় রেখো।