আজকের উপলব্ধিতে নাগরিক ঐক্য [০১.০৬.১৫]

 

নাগরিক ঐক্য #Nagorik

Prof Yunus at Social Business Day 2015

Prof Yunus at Social Business Day 2015

“দারিদ্র্য, বেকারত্ব ও কার্বন নিঃসরণ (Carbon Emission) শূন্যের পর্যায়ে থাকবে, এমন এক বিশ্ব গড়ার লক্ষ্যে – চারটি মহাশক্তি – তারুণ্য ( #YouthEmpowerment #SocialMediaForSocietalTransformation ) , প্রযুক্তি, সামাজিক ব্যবসা (Social Business) ও সুশাসন (Good Governance) কে কাজে লাগানোর কথা বললেন বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনূস

তাহসিনা খাতুনের নেতৃত্বে গ্রামীণ ব্যাংকের নির্বাচিত নারী প্রতিনিধিরা মঞ্চে ওঠেন।

মঞ্চে ছিলেন ইংরেজি দৈনিক “The Daily Star” Editor & Publisher মাহ্ফুজ আনাম ( #Nagorik ), যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা স্টিফেনস ব্লুম বার্নিকাট, যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার রবার্ট গিবসন, ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত সুফি অ্যাবার্ট, সুইডেনের রাষ্ট্রদূত জন ফ্রাইসেল, চীনের রাষ্ট্রদূত মা জিংজিয়ান, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরামর্শক শরিফাহ হাপসা সাহাবুদ্দীন।”

 

নাগরিক ঐক্য #Nagorik

MuhammadJafar-iqbal

“অনন্ত … অভিজিত রায় … ওয়াশিকুর রহমান বাবু … রাজীব হায়দার  #StopExtremismLedViolence

আজকাল “নাস্তিক” এবং “ব্লগার” দুটো শব্দকে সমার্থক করে ফেলার জন্যে খুবই চেষ্টা করা হচ্ছে। অথচ মজার ব্যাপার হল, যদি আমাদের কখনও ইসলাম ধর্ম (বা অন্য কোনো ধর্ম) নিয়ে কোনো জরুরি তথ্য বা বিশ্লেষণের দরকার হয় তখন আমরা সেটা খুঁজে পাই কোনো একজন ইসলামি চিন্তাবিদ ব্লগারের লেখা থেকে। ইন্টারনেটে শুধুমাত্র ইসলাম ধর্মের উপরেই অসংখ্য ব্লগ আছে। অসংখ্য খাঁটি মুসলমান ব্লগার আছেন।”

 

নাগরিক ঐক্য #Nagorik

সাবেক মন্ত্রী গোলাম মোহাম্মদ কাদের

সাবেক মন্ত্রী গোলাম মোহাম্মদ কাদের

“সংগঠক ইলিয়াস কাঞ্চনকে “নিরাপদ সড়ক চাই” (নিসচা) আন্দোলনের জন্য সম্মাননা পুরস্কার। ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, দেশে ৩৪৫ জন সংসদ সদস্য আছেন – যদি তারা প্রত্যেকে দিন একটি ভলো কাজ করেন তাহলে প্রতিদিন ৩৪৫টি ভালো কাজ হয়। “

 

নাগরিক ঐক্য #Nagorik : চট্ট্রগ্রাম

Chittagong PHP Defense

“প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের সিনিয়র ডাইরেক্টিভ স্টাফ এয়ার ভাইস মার্শাল মাহমুদ হোসেন। সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদ মার্যাদার ৭৪ জন ছিলেন প্রতিনিধি দলে।

আয়োজিত সভায় পিএইচপি শিল্প পরিবারের চেয়ারম্যান সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ( #Nagorik ) ও নাশনাল ডিফেন্স কলেজের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কামরুল আহসান বক্তব্য রাখেন।”

নাগরিক ঐক্য #Nagorik : চট্ট্রগ্রাম

“সৈয়দ মুহাম্মদ হাসান বলেন, নিজ কর্মগুণে একজন মানুষ কতটা প্রভাব বিস্তার করে নিজেকে অন্য মাত্রায় তুলে ধরতে পারেন তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত জামাল আহমদ সিকদার। তার নির্লোভ, নির্মোহ জীবনাচার থেকে নতুন প্রজম্মের অনেক কিছুই শেখার আছে।

রেজাউল আলী জসিম চৌধুরী‘র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, চবি অর্থনীতি বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আব্দুল মান্নান চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক পরিচালক (প্রশাসন) গোলাম রসুল, অধ্যক্ষ আল্লামা খায়রুল বশর হক্কানী, সৈয়দ বদিউজ্জামান, মরহুম জামাল আহমদ সিকদারের পুত্র মুহাম্মদ জোনাইদ হোসাইন।”

 

মাদকমুক্ত বাংলাদেশ  #StopDrugTrafficking  #Nagorik

“জব্দ মাদকের মধ্যে রয়েছে ২ লাখ ৬৩ হাজার ৪শ ৫২টি ইয়াবা ট্যাবলেট, ৫৩ হাজার ৩শ ১০ বোতল ফেনসিডিল, ৭শ ৯৮ কেজি গাঁজা, ২৮ হাজার ২শ ৭৩ বোতল বিদেশি মদ, ২শ ১০ গ্রাম হেরোইন, ১৪ হাজার ৬শ ৭৬টি এনেগ্রা/সেনেগ্রা ট্যাবলেট, ৬ হাজার ৭শটি নেশাজাতীয় ইনজেকশন এবং ২২ লাখ ৭৫ হাজার ১শ ৮৬টি বিভিন্ন ধরনের ট্যাবলেট।”

International Relations

 

International: India

“নেপালের দিকে দৃষ্টি প্রধানমন্ত্রী মোদীর!”

President Barack Obama & Prime Minister Narendra Modi

President Barack Obama & Prime Minister Narendra Modi

 

International: Indian Cricket

“সঙ্গে যোগ দিয়েছেন আরেক সাবেক ব্যাটসম্যান ভিভিএস লক্ষ্মণ। ভারতের সাবেক ব্যাটিং স্তম্ভকে নিয়ে একটি পরামর্শ কমিটি বানাতে যাচ্ছে BCCI।” #IndianCricket

Sourav Ganguly, VVS Laxman, Sachin Tendulker

Sourav Ganguly, VVS Laxman, Sachin Tendulker

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে লেখা চিঠি

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল,

২০১৫ বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে খেলতেই হবে।

নিষ্ঠার সাথে প্র্যাকটিস, মানসিকভাবে দৃঢ় থাকা, খেলা উপভোগ করাটাই আসল।

আমি জানি, বাংলাদেশ পারবে। এটা শুধু বিশ্বাস না, আমি অনেক কিছু জানি! অনেক অনেক কিছু! অনেক অনেক অনেক গভীর কিছু!

বাংলাদেশ পারবে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল নিয়ে পরিকল্পনা

[প্রকাশের তারিখ: ২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪]

 

২০১৫ বিশ্বকাপ ক্রিকেট কিন্তু এগিয়ে আসছে!

মধ্যমেয়াদি পরিকল্পনা করার এখনই সময়। 

২০১৫ বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে খেলতেই হবে।


আর সেমিফাইনালে পৌঁছে গেলে যে কোন কিছু ঘটতে পারে।
তরুণ মুশফিকের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দলটির প্রায় সবাই বয়সে তরুণ। এদের নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করা যায়।

সাকিব, মুশফিক, নাসিরকে নিয়ে আমাদের মিডল অর্ডারটা সলিড। 

এখন তামিম আর শামসুর, মমিনুল, আনামুল কে নিয়ে আমাদের টপ অর্ডারটাও অনেক ব্যলান্সড হয়ে উঠছে। 


খেলোয়াড়রা ব্যক্তিগত টার্গেট করতে পারেঃ 

ICC Ranking Top 50 ODI Batsman – ৭ জন বাংলাদেশী, 
Top 20 ODI Batsman – ৩ জন বাংলাদেশী , 
(বর্তমানে সাকিবের রাঙ্কিং ২২, তামিম ৩১, নাসির ৩৫, মুশফিক ৪৮) [1]

ICC Ranking Top 40 ODI Bowlers – ৫ জন বাংলাদেশী 
Top 10 ODI Bowlers – ২ জন বাংলাদেশী
(বর্তমানে আব্দুর রাজ্জাক ১২, সাকিব ২০, মাশরাফি ৩৮, রুবেল ৫২) [1]

Top 10 ODI all-rounders – ২ জন বাংলাদেশী
Top ODI all-rounder in the world – বাংলাদেশী
(বর্তমানে সাকিব ২) [1]তাহলে অনেক বালেন্সড টীম হবে। 

ব্যক্তিগত অনুপ্রেরণা হিসেবেও টার্গেট ভাল কাজ করে।



প্রতিটা ম্যাচকে সত্যিকারের “game” হিসেবে নিতে হবে। “উপভোগ” করতে হবে।

খেলা মানুষ খেলে কেন? উপভোগ করার জন্যই তো, নাকি?

“চাপ” শব্দটাই বাদ দিতে হবে।

“চাপ” কমাতে আমরা সাপোরটাররাও আরও সহনশীল হব। প্রিয় দল হেরে গেলে কার না খারাপ লাগে? কিন্তু প্রিয় খেলোয়াড় ভাল খেললে প্রশংসার পাশাপাশি কোন খেলোয়াড় একদিন ভুল করলে আমরা তার পাশে থাকবো। 



ফুটবলের জাদুকর ব্রাজিলের Pele প্রতি ম্যাচের আগে কি করতেন?

পেলে relaxed হয়ে ফুটবল নিয়ে অতীত সুখস্মৃতিগুলো থেকে ঘুরে আসতেন! এতে একদিকে ম্যাচের সময় টেনশান থাকতো না। অন্যদিকে confidence এবং নিজের ক্ষমতার উপর faith শক্তিশালী হত –

আমি পেরেছিলাম, আমি আজকেও পারবো।

পেলের তো ল্যাপটপ ছিল না! আমাদের ছেলেরা ম্যাচের আগে ল্যাপটপে নিজের সাফল্যের ভিডিও দেখে অনুপ্রাণিত হতে পারে।

Skill Acquisition

ক্রিকেটের মত খেলায় এক একটা skill acquire করা গুরুত্বপূর্ণ। যেমন এক একটা স্ট্রোক পারফেক্টলি খেলতে শেখা বা ইয়রকার পারফেক্ট করা।

Skill acquire করতে গুরুত্বপূর্ণ:

Feedback থেকে শেখা।

ধরা যাক, কেউ cover drive পারফেক্ট করতে চাইছে। নিজে বারবার চেষ্টা করে নিজের ভুল, নিজের সাফল্য থেকে শেখা হল Feedback থেকে শেখা। ফুটওয়ার্ক ঠিকমত হচ্ছে তো? বলটা ঠিক কোনদিকে পাঠাতে চায়? ফিল্ডাররা কোথায়? সেবার ভুল কেন হল? ঐবার এত দারুণভাবে খেললাম কিভাবে? যিনি cover drive ভাল খেলেন, তিনি কিভাবে খেলেন? (তাড়াতাড়ি তাকে ফোন!)

Concentration – সম্পূর্ণ মনোযোগ ব্যাটিং এ আবদ্ধ রাখা। পড়াশোনায় যেমন মনোযোগ লাগে, তেমনি ভাল প্লেয়ারদের সাথে অ্যামেচারদের পার্থক্য গড়ে দেয় Concentration। আমি Meditation রিকমেন্ড করবো।

অনেক অনেক Practice:

কোন একটা স্ট্রোক পারফেক্টলি খেলার দক্ষতা অর্জন করতে অনেক প্র্যাকটিস লাগে। জাতীয় দলের ব্যাটসম্যানরা কিশোর – তরুণ বোলারদের নিয়ে প্র্যাকটিস করতে পারে। নিজেদের ব্যাটিং প্র্যাকটিস হয়ে গেলো। আবার কিশোর – তরুণ বোলারদের বোলিং প্র্যাকটিস হয়ে গেলো। জাতীয় দলের ব্যাটসম্যানদের বল করতে পেরে ওদের অনুপ্রেরণাও বাড়বে।

Win -win! এমন পরিকল্পনা যাতে সবাই জিতল! খেলোয়াড়রাও, তরুণরাও।

জাতীয় দলের বোলাররা ও এটা করতে পারে।



বাংলাদেশ ক্রিকেট দল নিয়ে আরও লেখা

রেফরেন্স

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল নিয়ে স্বপ্ন

আমাদের দেশের বিভেদের রাজনীতিতে একমাত্র বাংলাদেশ ক্রিকেট দলই এক একটা সাফল্য দিয়ে সারা দেশকে ঐক্যবদ্ধভাবে আনন্দ উল্লাসের উপলক্ষ এনে দিয়েছে।

এক একটা সাফল্যে আমরা দেখবাসী আনন্দে চিৎকার করে উঠি, রাস্তায় নেমে একসাথে উল্লাস করি।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল বাংলাদেশীদের গর্ব।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ১১ জন যখন মাঠে নামেন তখন ১৬ কোটি হৃদয় এবং তাদের প্রার্থনাকে সাথে নিয়ে নামেন।

আমাদের ক্রিকেট দলটা এখন দারুন কম্বিনেশান।

ওপেনিং এ নামা তামিম ইকবাল অনেক বছর ধরে দেশ সেরা ব্যাটসম্যান।

২, ৩, ৪ এর জন্য – শামসুর, আনামুল, মমিনুল, ইমরুল, মার্শাল আইয়ুব, শাহরিয়ার নাফিস, নাজিমুদ্দিন, অলক কাপালি, জুনায়েদ সিদ্দিকী আর জহুরুল – প্রতি ম্যাচে এতজন থেকে ৩ জনকে বেছে নিতে হবে – কী কঠিন একটা কাজ – ক্রিকেট খেলাটা ১১ জনের না হয়ে ১৪ জনের হলেই মনে হয় ভাল হত!

মিডল অর্ডারটা সত্যিই দারুণ! বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান, নির্ভরতার প্রতীক অধিনায়ক মুশফিক, তরুণ নাসিরকে নিয়ে গড়া।

এতই দারুণ যে মাহমুদুল্লাহ, জিয়াউর রহমান, ফরহাদ রেজা আর “ছক্কা” নাঈমের মত অলরাউন্ডারদের কাকে ছেড়ে কাকে নেবেন তা নির্বাচকদের “মধুর” মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়!

অনেক বছর ধরে “বাম হাতি স্পিনারের দেশ” হয়ে ছিল “বাংলাদেশ”।

সোহাগ গাজী এসে তা পাল্টে দিলেন। তিনি শুধু ডানহাতি স্পিনারই নন, ব্যাট হাতে সেঞ্চুরি ও হাঁকাতে পারেন!

পেসার হিসেবে “নড়াইল এক্সপ্রেস” দেশসেরা মাশরাফি (আমাদের “ম্যাশ”), দ্রুতগতির রুবেল, “ইয়া লম্বা” (এবং অবশ্যই – “হ্যান্ডসাম”) শাহাদাত, “বিশ্বকাপের হিরো” শফিউল, আল আমিন, রবিউল, আবুল হাসান, নাজমুল – বেছে নেওয়াই তো কঠিন! এত পেসারের কারণে আমরা তাপস বৈশ্য কিংবা বামহাতি মঞ্জুরুল, রাসেলদের ভুলে যেতে বসেছি।

তারপরও যখন বিশ্বমানের স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক বাকি থাকে তখন আমরা সোহরোওয়ারদি শুভ, এনামুল হক (জুনিয়র), ইলিয়াস সানি, আরাফাত সানিদের কথাও অনেক সময় ভুলে যাই!

আমাদের প্রথম ওয়ানডে সেঞ্চুরিয়ান মেহরাব হোসেন অপি আর শাহরিয়ার হোসেন বিদ্যুতদের খোঁজ কেউ দিতে পারেন? বিদ্যুৎ তো জিম্বাবুয়ের সাথে ঐ ম্যাচে ৯৫ করেছিলেন, আর ওপেনিং এ দুশো রানের জুটি, নাকি?

সাকিব আর তামিম অনেক বছর ধরে আমাদের সেরা পারফর্মার। ২০১১ বিশ্বকাপের পর ডেবিউ হওয়া নাসির এলেন আর জয় করলেন! আর ২০১৩ তে এলেন, জয় করলেন মমিনুল আর সোহাগ গাজী!

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ম্যাচ আনালাইসিস, প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের শক্তি-দুর্বলতা চিহ্নিত করা, ব্যাটিং প্র্যাকটিস – এসবের জন্য প্রযুক্তি উদ্ভাবনের ভাবনা ছিল। কোনদিন হয়ত ভাবনাগুলো বাস্তবে পরিণত হবে।

কোচ বব উলমার কিংবা জন বুকাননদের কম্পিউটার সখ্যতার কথা আমরা কে না জানি!

ProBatter প্রযুক্তি

“ক্যাপ্টেইন ফ্যান্টাস্টিক” “আবেগপ্রবণ” মুশফিকুরের নেতৃত্বাধীন দলটি বিশ্বকাপ জয় করে আনবে আর পুরো দেশ একটা উৎসবের দেশে পরিণত হবে – দেশবাসী সেই স্বপ্নে বিভোর!

“আমরা করব জয়!”

প্লেইলিস্ট

রেফরেন্স


৯৭ এ আমাদের শুরু