America in Realization [03.24.15]

 

Politics: Election 2016

Presidential Election nominee Hillary Rodham Clinton

Presidential Election nominee Hillary Rodham Clinton

1. Working together (Executive Branch and the Legislature): People should “get out of the kind of very unproductive discussion, where people are just in their ideological bunkers, having arguments instead of trying to reach across those divides and have some solutions.”

2. Urban America.

3. Income inequality as a persistent problem.”

 

Empowering the Poor

Personally, I prefer the term “Poverty reduction” to “Tackling Income Inequality” – the later makes one feel as though the Government has to take money away from the rich (by burdening people with more Taxes) to take care of the poor.

The truth:

“There is more than enough for all of us – the rich, the poor and everyone in between. It’s all about getting all the “Systems” work better.”

 

Instances of “Systems”: Everything that comprises the Healthcare is a “System” – the “Healthcare System”.

 

I prefer “Poverty reduction” to “Tackling Income Inequality“, but the phrase I prefer most is “Empowering the Poor”. #EmpowermentOfPeople  #EmpoweringThePoor

 

How do you Empower the Poor?

By improving relevant “Systems”, so that the poor can afford Education and Training, Healthcare and Medicine, secure Jobs or start their own venture.

 

Poverty Reduction Initiative

আজকের উপলব্ধিতে নাগরিক ঐক্য [২৩.০২.১৫]

International Relations – Foreign Policy – Diplomacy

Bangladesh – EU Relations

Bangladesh – Sweden Relations

 

Bangladesh Cricket Team @Cricket World Cup 2015

#BDinWC15

“আল আমিনের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ নেই।”

 

অর্থনীতি ও বাণিজ্য – Business & Economics

“বক্তৃতায় অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার জয়ী অমর্ত্য সেন বলেন, অর্থনীতির সঙ্গে দরকার মানবিক প্রগতিও। মানবিক প্রগতির অন্যতম খাত হলো শিক্ষাস্বাস্থ্যসেবাসরকার [ “Government”কেই এ দুই খাতে বিনিয়োগে এগিয়ে আসতে হবে।

[ “Government Intervention” ]

‘বেসরকারি খাতের মাধ্যমে দরিদ্র লোকের স্বাস্থ্য, শিক্ষা দেওয়া যাবে, তা ভীষণ দিগ্ভ্রম। বেসরকারি খাত [ “Private Sector” ] দিয়ে এটা করানো অর্থনৈতিক চিন্তার ভ্রম।’

Private Sector -> “Market” ]

বক্তৃতায় অমর্ত্য সেন আরও বলেন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, নারীর ক্ষমতায়ন [ #WomenEmpowerment ] , লিঙ্গবৈষম্যসহ বিভিন্ন সামাজিক সূচকে ভারতের চেয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে রয়েছে। এটি বাংলাদেশের বড় কৃতিত্ব।”  #EmpoweringPeople  

Economics Nobel Laureate Dr Amartya Sen

Economics Nobel Laureate Dr Amartya Sen

 

A Brief Overview of Amartya Sen’s Works in Economics  #TahsinOnEconomics

Nobel Laureate Amartya Sen grew up in Bangladesh and India with first hand experience of watching people deprived from basic “Capabilities” like Nutrition, Healthcare and Education.

Reference:  Sen’s Capability Approach [Internet Encyclopedia of Philosophy] 

Dr Sen pointed out that Economic Development ( #Development Economics ) results from ensuring “Freedom” of people – “Freedom” that comes with access to NutritionDr Sen did major research on “Famine” in West Bengal and Bangladesh), Healthcare, Education, Participatory Democracy, Justice and (access to) Market.

Reference: Development as Freedom by Amartya Sen [Amazon]

Whereas Western Economists consider GDP growth as the sole important factor and measure in Development Economics, constraining the scope of Economics to Economic Activity and “Profit Maximization” of Firms, 

Dr Sen (with his experiences of growing up in  a Developing Nation) broadened the scope of Economics to include Human “Capability” Development.

 

What Dr Sen termed as Human “Capability” Development, and ensuring “Freedom”, is, in my own terminology, “Empowerment of People”.  #EmpoweringPeople

 

Economic Philosophy of Nagorik Shakti:

  1. “Free Market Economy”
  2. The need for Government Intervention
  3. Empowerment of People  #EmpoweringPeople

 

Links to Related Articles by Me:

Latest From Science & Engineering, Medicine & Innovation [01.24.15]

Social Media

#Twitter

“Users will be able to choose whether or not they want to see translation options for tweets in their account setting.”

 

Google

Virtual Wireless Service

“Move Likely to Push Rivals to Cut Prices, Improve Speeds”

 

Gates Foundation

Empowering People   #EmpoweringPeople

“initiative will allow those who want to contribute to making changes in the world the opportunity to hear about how they can contribute by signing up through a new website, GlobalCitizen.org

 

Microsoft

#PhysicalDigital    #AugmentedReality

 

Physical Digital Computing

#PhysicalDigital

The only Conference dedicated to Physical Digital Computing:

 

 

Physical Digital Computing (#PhysicalDigital) & Internet of Things (IoT) dominated this year’s Consumers Electronics Show – CES 2015, which was the bigget CES in recent times.

Smart Home, Wearables, Smart Car, Drones and 3D Printers were the hot topics of interest.

 

Youtube Playlist (Compiled By Me): Consumer Electronics Show (CES) 2015    #PhysicalDigital

Notes For Roman Catholic Church

God wants each of us to grow and be like Him.
And we can help people grow by providing tools and creating conditions, platforms for empowerment.

=> Empowering People      #EmpoweringPeople

Each and everyone of us has so much potential inside – waiting to be unlocked.

I will show ways of unlocking that potential – through my “Education Platforms and Services”.

=> Decentralization of Power 

If anyone does wrong – show him the right way.

But encourage everyone to grow and contribute.

Redesign Organizations so that everyone feels “empowered”.

[This is why the US Philosophy of “Individual Liberty and Freedom” has been proven to be so successful.

This principle also underlies “Free-Market Capitalism” (“Let Firms grow”) – with necessary Government interventions – whenever required

(e.g., Government intervening to “empower” the poor – creating Platforms & Services {e.g., Education, Healthcare} so that they can grow themselves and reach their potential).

But when Firms get wise and consider the long term: “Win-win” proves to be the best Policy – you win most when you win with others.]

Articles By Me

Marriage & Family Life

 

Unification of Catholicism, Protestantism, Orthodox Church and other Christian denominations and sects

[12.19.14]

Earlier in News

“Roman Catholic Church leaders from around the world begin a two-week brainstorming session this weekend, on how to better present their teachings on marriage, family life, and sexuality to their flock.
In Vatican terminology, the closed-door session is called an “extraordinary synod”.
The 263 participants in the Synod of the Family are almost all celibate males, with no first-hand experience of creating their own families, although a dozen hand-picked Roman Catholic married couples will sit in and share their experience with the synod “fathers”.
Pope Francis will address the synod when it opens but intends to use the meeting mainly as a listening experience.
He wants the world’s bishops to involve themselves freely in the future governance of the Church, rather than being relegated to the sidelines, as at many previous synods, when the agenda was set and proceedings were tightly controlled by the powerful cardinals of the Roman Curia, the central government of the Church, based inside in the Vatican.
Extraordinary synods are rare and called to address urgent challenges faced by the Church. This one will be watched particularly closely, both inside and outside the Church – whose future could depend on what emerges.”
Related

download

নাগরিক শক্তি: সংগঠন [Nagorik Shakti: Organization]

Nagorik Shakti : Organization

  • Executive Council 
  • Secretariat
  • National Council
  • Advisory Council

Executive Council 

[“নাগরিক শক্তি”র আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশ ঘোষণার দিন – নিন্মোক্ত ব্যক্তিরা দলের President, Executive President এবং Vice President-র দায়িত্ব গ্রহণ করবেনঃ]
1. President
2. Executive President

 

3. Vice President [11]
[জেনারেল সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্বরত ব্যক্তি এক্সিকিউটিভ কাউন্সিলের সদস্য বিবেচিত হবেন।]

 

Secretariat

[“নাগরিক শক্তি”র আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশ ঘোষণার পর নিন্মোক্ত ব্যক্তিরা দলের জেনারেল সেক্রেটারি, কো-জেনারেল সেক্রেটারি, জয়েন্ট জেনারেল সেক্রেটারি এবং সেক্রেটারি হিসেবে নিজ নিজ দায়িত্ব গ্রহণ করবেন:]

General Secretary

  1. ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) এম সাখাওয়াত হোসেন: সাবেক নির্বাচন কমিশনার

Co-General Secretary

  1. ড. হোসেন জিল্লুর রহমান: তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা
  2. প্রফেসর ড. আবুল বারকাত: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ও প্রাক্তন চেয়ারম্যান; জনতা ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান; বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি; মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক
  3. জনাব গোলাম মোহাম্মদ কাদের : প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও ইঞ্জিনিয়ার; সাবেক সংসদ সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী

Joint General Secretary

  1. জনাব আতিকুল ইসলাম: সভাপতি, বিজিএমইএ (BGMEA); এমডি, ইসলাম গার্মেন্টস লিমিটেড (সিনিয়ার)
  2. জনাব মাহমুদুর রহমান মান্না: আহ্বায়ক, নাগরিক ঐক্য; প্রবীণ রাজনীতিবিদ; ডাকসুর সাবেক ভিপি (সিনিয়ার)
  3. জনাব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার : প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক সাংসদ (সিনিয়ার)
  4. জনাব মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর: মিডিয়া ও উন্নয়নকর্মী
  5. জনাব ইলিয়াস কাঞ্চন: “নিরাপদ সড়ক চাই” আন্দোলনের প্রধান কান্ডারী
  6. জনাব তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ: সাবেক সাংসদ ও স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
  7. জনাব মাহী বি. চৌধুরী: সাবেক সাংসদ
  8. ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ: সাবেক সাংসদ
  9. জনাব গোলাম মাওলা রনি: সাবেক সাংসদ
  10. ব্যারিস্টার সারা হোসেন: আইনজীবী ও মানবাধিকার কর্মী
  11. ব্যারিস্টার তানিয়া আমির: ম্যানেজিং পার্টনার, Amir & Amir Law Associates
  12. প্রফেসর ড. আসিফ নজরুল: অধ্যাপক, আইন বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
  13. প্রফেসর আনু মুহাম্মদ: অর্থনীতিবিদ ও অধ্যাপক, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়
  14. জনাব মুহাম্মদ জুনায়েদ বাবুনগরী: হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব
  15. জনাব জোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় (সন্তু) লারমা: পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) সভাপতি
  16. ড. রেদোয়ান আহমেদ: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক সাংসদ 
  17. জনাব মোস্তফা মহসীন মন্টু: প্রবীণ রাজনীতিবিদ
  18. জনাব আবদুল মালেক রতন: প্রবীণ রাজনীতিবিদ
  19. জনাব হাবিবুর রহমান তালুকদার বীরপ্রতীক: প্রবীণ রাজনীতিবিদ
  20. জনাব সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ: প্রবীণ রাজনীতিবিদ 

Secretary

  1. ডা. ইমরান এইচ. সরকার: মুখপাত্র, গণজাগরণ মঞ্চ; সংগঠক
  2. ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী : তরুণ রাজনীতিবিদ; সদস্য, ট্রাস্টি বোর্ড, Dhaka International University
  3. জনাব জোনায়েদ সাকি : গনসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী 
 
[সেক্রেটারিয়েটের দায়িত্ব হবে সারা দেশে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করা।]

National Council

Members
[“নাগরিক শক্তি”র আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশ ঘোষণার দিন নিন্মোক্ত ব্যক্তিরা National Council এ দায়িত্ব গ্রহণ করবেন:]
  1. জেনারেল মঈন ইউ আহমেদ: সাবেক সেনাপ্রধান; ২০০৭-০৮ তত্ত্বাবধায়ক সরকারকালীন বিশেষ ভূমিকার জন্য দেশ ও বিদেশে প্রশংশিত  (সিনিয়ার)
  2. জেনারেল মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান: সাবেক সেনাপ্রধান; প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  3. ড. এটিএম শামসূল হুদা: সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার; সাবেক সচিব (সিনিয়ার)
  4. ড. সা’দত হুসাইন: সাবেক মন্ত্রী পরিষদ সচিব; পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি) র সাবেক চেয়ারম্যান (সিনিয়ার)
  5. জনাব আলী ইমাম মজুমদার: সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব (সিনিয়ার)
  6. জনাব মাহফুজ আনাম: The Daily Star এর সম্পাদক; মেম্বার, বোর্ড অফ ট্রাস্টি, ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল, বাংলাদেশ (সিনিয়ার)
  7. মেজর জেনারেল (অব:) আব্দুর রশিদ: নির্বাহী পরিচালক, Institute of Conflict, Law & Development Studies; নিরাপত্তা বিশ্লেষক (সিনিয়ার)
  8. ব্যারিস্টার আমির-উল-ইসলাম: বাংলাদেশের প্রথম সংসদের সংসদ সদস্য এবং বঙ্গবন্ধু কর্তৃক গঠিত মন্ত্রীসভার সদস্য; ভিজিটিং ফ্যাকাল্টি মেম্বার, National Law School University of India এবং Tufts University; গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংবিধানের ড্রাফটিং কমিটির সদস্য; প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট, সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশান (সিনিয়ার)
  9. ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ: বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির প্রাক্তন সভাপতি (সিনিয়ার)
  10. ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন: তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা; চেয়ারম্যান, এডিটরিয়াল বোর্ড, The New Nation (সিনিয়ার)
  11. বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী: বীর উত্তম; প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  12. জনাব হাসানুল হক ইনু: মন্ত্রী, সংসদ সদস্য; কেমিক্যাল প্রকৌশলী; সভাপতি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ (সিনিয়ার)
  13. জনাব রাশেদ খান মেননঃ মন্ত্রী, সংসদ সদস্য; সভাপতি, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি (সিনিয়ার)
  14. জনাব আ স ম আব্দুর রব: প্রাক্তন মন্ত্রী; প্রবীণ রাজনীতিবিদ; মুক্তিযোদ্ধা (সিনিয়ার)
  15. জনাব মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম: প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  16. জনাব কমরেড খালেকুজ্জামান: প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  17. জনাব দিলিপ বড়ুয়া: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী (সিনিয়ার)
  18. জনাব হায়দার আকবর খান রনো: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক; তাত্ত্বিক, বুদ্ধিজীবী এবং বহু গ্রন্থের লেখক (সিনিয়ার)
  19. জনাব কাজী ফিরোজ রশিদ : প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও সাবেক মন্ত্রী; মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক (সিনিয়ার)
  20. জনাব শেখ শহিদুল ইসলাম : প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক শিক্ষামন্ত্রী (সিনিয়ার)
  21. ড. ফেরদৌস আহমেদ কোরেশী: প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  22. মেজর জেনারেল (অব:) সৈয়দ মুহম্মদ ইব্রাহীম, বীর প্রতীক: প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  23. জনাব মেজর (অব:) আবদুল মান্নান: সাবেক মন্ত্রী; চেয়ারম্যান, বাংলালায়ন কমিউনিকেশান্স লিমিটেড (সিনিয়ার)
  24. জনাব এম মোরশেদ খান: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সাংসদ (সিনিয়ার)
  25. জনাব মীর মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী; সাবেক মেয়র, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশান(সিনিয়ার)
  26. জনাব জাফরুল ইসলাম চৌধুরী: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য (সিনিয়ার)
  27. ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য (সিনিয়ার)
  28. জনাব শেখ রাজ্জাক আলী: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক স্পীকার ও সাংসদ (সিনিয়ার)
  29. ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) আবু সুলতান মুহাম্মদ হান্নান শাহ: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী (সিনিয়ার)
  30. জনাব মেজর (অব:) এম হাফিজউদ্দিন আহমেদ, বীর বিক্রম: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী ও সাংসদ (সিনিয়ার)
  31. এয়ার ভাইস মার্শাল (অব:) আলতাফ হোসেন চৌধুরী : সাবেক বিমান বাহিনী প্রধান এবং সাবেক মন্ত্রী (সিনিয়ার)
  32. মেজর জেনারেল (অব) জেড এ খান: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক চেয়ারম্যান, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, ঢাকা (সিনিয়ার)
  33. Maj (retd) M Akhtaruzzaman : Former member of Parliament (Senior)
  34. জনাব সাদেক হোসেন খোকা : ঢাকার সাবেক মেয়র ও সাবেক মন্ত্রী; মুক্তিযোদ্ধা (সিনিয়ার)
  35. ড. আবদুল মঈন খান : সাবেক মন্ত্রী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  36. ড. ওসমান ফারুক : সাবেক মন্ত্রী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  37. ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া : সাবেক মন্ত্রী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  38. জনাব তরিকুল ইসলাম : সাবেক মন্ত্রী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  39. ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার : সাবেক মন্ত্রী ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  40. জনাব আশরাফ হোসেন: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক সাংসদ ও উইপ (সিনিয়ার)
  41. জনাব নজরুল ইসলাম খান : প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী ও সাংসদ (সিনিয়ার)
  42. ডাঃ জাফরউল্লাহ চৌধুরী: পরিচালক, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র; স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসক; বাংলাদেশ ন্যাশনাল ড্রাগ পলিসি ১৯৮২ র অন্যতম প্রণেতা; স্বাধীনতা পদক, Ramon Magsasay Award সহ বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত (সিনিয়ার)
  43. জনাব শমসের মবিন চৌধুরী, বীর বিক্রম : কূটনীতিবিদ; পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব; সাবেক অ্যাম্বাসাডার; প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  44. জনাব আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী ও সাংসদ (সিনিয়ার)
  45. জনাব আব্দুলাহ আল নোমান: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী ও সাংসদ (সিনিয়ার)
  46. জনাব এম এ জিন্নাহ: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী ও সাংসদ (সিনিয়ার)
  47. জনাব মণি স্বপন দেওয়ান: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক মন্ত্রী ও সাংসদ (সিনিয়ার)
  48. জনাব আবদুল করিম আব্বাসীঃ সাবেক হুইপ (সিনিয়ার)
  49. জনাব গয়েশ্বর চন্দ্র রায় : প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক সাংসদ (সিনিয়ার)
  50. জনাব শামসুজ্জামান দুদু : সাবেক এমপি; প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  51. ড. মিজানুর রহমান শেলী : Former Member of parliament and Minister, political analyst, thinker, litterateur, writer and social scientist, founder Chairman of Centre for Development Research, Bangladesh (CDR-B), Overseas Director, American Institute of Bangladesh Studies (AIBS) and Editor of quarterly “Asian Affairs” (সিনিয়ার)
  52. জনাব এম রশিদুজ্জামান মিল্লাত : সাবেক এমপি (সিনিয়ার)
  53. জনাব সোলায়মান আলম শেঠ: প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  54. জনাব নূরে আলম সিদ্দিকী: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; মুক্তিযুদ্ধের সময়কার স্বাধীন বাংলা সংগ্রাম পরিষদের অবিসংবাদিত নেতা (সিনিয়ার)
  55. অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ: সাবেক মন্ত্রী; প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  56. ইঞ্জিনিয়ার আফসার উদ্দিন আহমেদ: সাবেক সংসদ সদস্য; প্রতিষ্ঠাতা, বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি, মেডিক্যাল কলেজ এবং ইব্রাহীম ইকবাল মেমোরিয়াল হসপিটাল, চন্দনাইশ; প্রতিষ্ঠাতা, Alltex Group; মুক্তিযোদ্ধা (সিনিয়ার)
  57. জনাব সুলতান মোহাম্মদ মনসুর : প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক সাংসদ ও ঢাকসুর সাবেক ভিপি (সিনিয়ার)
  58. জনাব সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী : ফাউন্ডার চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশান (সিনিয়ার)
  59. জনাব শফিউল আলম প্রধান : সাবেক সাংসদ; মুক্তিযোদ্ধা; মুক্তিযুদ্ধ কালীন ছাত্রনেতা (সিনিয়ার)
  60. জনাব পঙ্কজ ভট্টাচার্য: প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)
  61. জনাব কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ: সভাপতি, এফবিসিসিআই (FBCCI); ফাউন্ডার চেয়ারম্যান: স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড (সিনিয়ার)
  62. জনাব আবদুল হক: ডিরেক্টার, এফবিসিসিআই (FBCCI); এমডি, হক’স বেই অটোমোবাইল লিমিটেড (সিনিয়ার)
  63. জনাব কামাল লোহানী: সভাপতি, উদীচী শিল্পগোষ্ঠী; সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব (সিনিয়ার)
  64. প্রফেসর ড. মুহম্মদ ইব্রাহীম: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়য়ের পদার্থবিজ্ঞানের অধ্যাপক; “বিজ্ঞান সাময়িকী”র প্রতিষ্ঠাতা; এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টার, Center for Mass Education in Science (CMES) (সিনিয়ার)
  65. প্রফেসর ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল: লেখক; বিভাগীয় প্রধান, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়; সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটি (সিনিয়ার)
  66. জনাব খোন্দকার ইব্রাহীম খালেদঃ ব্যাংকার; সাবেক ডেপুটি গভর্নর, বাংলাদেশ ব্যাংক (সিনিয়ার)
  67. জনাব হাফিজ আহমেদ মজুমদার : চেয়ারম্যান, পূবালী ব্যাংক লিমিটেড; সাবেক এমপি এবং জনসেবক (সিনিয়ার)
  68. জনাব আবদুল হাই সরকার : চেয়ারম্যান, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড; Former President of Bangladesh Textile Mills Association (BTMA); Former Vice Chairman of Bangladesh Association of Banks (BAB); Former Director of Federation of Bangladesh Chamber of Commerce and Industries (FBCCI); Founder Trustee of Independent University, Bangladesh (সিনিয়ার)
  69. জনাব রফিউর রাব্বি: সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব; সংগঠক; সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক
  70. প্রফেসর ড. শাহদীন মালিক: আইনজীবী, সুপ্রিম কোর্ট এবং অধ্যাপক, স্কুল অফ ল, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি
  71. ড. তুহিন মালিক: আইনজীবী,  সুপ্রিম কোর্ট
  72. জনাব রুহুল আমিন গাজী : আহ্বায়ক, বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবি পরিষদ (বিএসপিপি)
  73. জনাব সৈয়দ আবুল মকসুদ: গবেষক, প্রাবন্ধিক ও কলাম লেখক
  74. প্রফেসর ড. মুনতাসীর মামুন: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক; সভাপতি, বাংলাদেশ ইতিহাস সম্মিলনী; বাংলা একাডেমী পুরস্কার এবং একুশে পদক – ২০১০ প্রাপ্ত
  75. জনাব শাহরিয়ার কবির: লেখক; সাংবাদিক; ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি; অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার আন্দোলনের সংগঠক
  76. জনাব ইমদাদুল হক মিলন: জনপ্রিয় লেখক ও নাট্যকার; সাংবাদিক; সাহিত্যে বাংলা একাডেমী পুরস্কারপ্রাপ্ত
  77. প্রফেসর ড. সিদ্দিক-ই-রাব্বানী: ফাউন্ডিং চেয়ারপার্সন, ডিপার্টমেন্ট অফ বায়োমেডিকাল ফিজিক্স অ্যান্ড টেকনোলজি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; বাংলাদেশ একাডেমী অফ সায়েন্স কর্তৃক গোল্ড মেডেল প্রাপ্ত বিজ্ঞানী
  78. প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ: অধ্যাপক, বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়; ফেলো, বাংলাদেশ একাডেমী অফ সায়েন্সেস; বাংলাদেশে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা এবং গণিত অলিম্পিয়াড সূচনার পথিকৃৎ
  79. জনাব মোহাম্মদ সাইফুল আলম : চেয়ারম্যান ও এমডি, এস, আলম গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রিজ
  80. সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান : ফাউন্ডার চেয়ারম্যান, PHP (“Peace, Happiness & Prosperity”) Family; জনসেবক; “Business Person of the Year 2003” সম্মাননা প্রাপ্ত
  81. জনাব মাহবুবুল আলম : President, Chittagong Chamber of Commerce & Industry; ম্যানেজিং ডিরেক্টার, আলম ট্রেডিং কর্পোরেশান
  82. প্রফেসর মামুনুর রশিদ: ভাইস প্রেসিডেন্ট, BD Ventures Limited; প্রাক্তন ডিরেক্টার, BRAC Business School; প্রাক্তন সিইও, সিটি ব্যাংক লিমিটেড
  83. জনাব মোঃ সবুর খান: চেয়ারম্যান, ড্যাফোডিল গ্রুপ; সাবেক চেয়ারম্যান, DCCI; সাবেক চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি
  84. জনাব মোহাম্মদ আজিজ খান : Managing Director, Summit Group; Chairman, Khulna Power Company Limited; Founder Chairman, BECA.
  85. জনাব আনোয়ার-উল আলম চৌধুরী (পারভেজ) : প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট, বিজিএমইএ (BGMEA); Managing Director, Evince Group & Evince Garments Limited
  86. জনাব আবদুল মাতলুব আহমেদ : চেয়ারম্যান, নিটল নিলয় গ্রুপ; President, India-Bangladesh Chamber of Commerce & Industries; Vice President (founder President) of Bangladesh Automobiles Assembles & Manufactures Association (সিনিয়ার)
  87. জনাব এ এইচ. আসলাম সানি : সহ-সভাপতি, বিকেএমইএ (BKMEA); Managing Director, Abanti Colour Tex Ltd.
  88. জনাব হানিফ সংকেত: টিভি, মিডিয়া ও সংস্কৃতি ব্যক্তিত্
  89. জনাব জুয়েল আইচ : আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন যাদুশিল্পী, বাঁশী বাদক ও চিত্রশিল্পী; মুক্তিযোদ্ধা; শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় UNICEF ‘র অ্যাডভোকেট; একুশে পদক প্রাপ্ত
  90. ডাঃ আব্দুর নূর তুষার : বিশিষ্ট চিকিৎসক; মিডিয়া ব্যক্তিত্ব
  91. জনাব এস এম আকরাম: সাবেক সাংসদ
  92. প্রফেসর ড. এম এম আকাশ: প্রফেসর, অর্থনীতি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

Associate Members

  1. ড. মাহবুব মজুমদার: সহযোগী অধ্যাপক, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়;  বাংলাদেশ গণিত দলের কোচ 
  2. এডভোকেট সুব্রত চৌধুরি: প্রবীণ রাজনীতিবিদ   
  3. প্রফেসর ড. মামুন আহমেদ: প্রফেসর, ডিপার্টমেন্ট অফ বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড মলিকিউলার বায়োলজি, DU; সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি
  4. জনাব এ বি সিদ্দিক : শিল্প ব্যবসায়ী
  5. এডভোকেট সাঈদা রিজওয়ানা হাসান : আইনজীবী এবং পরিবেশবিদ; Ramon Magsasay Award জয়ী 
  6. জনাব মোজাম্মেল বাবু: ইঞ্জিনিয়ার; তথ্য প্রযুক্তিবিদ; সাংবাদিক এবং রাজনৈতিক বিশ্লেষক
  7. জনাব আফজাল হোসেন: বিশিষ্ট অভিনেতা
  8. জনাব আইয়ুব বাচ্চু: সঙ্গীতজ্ঞ; গায়ক
  9. জনাব শাফিন আহমেদ : গায়ক ও সঙ্গীতজ্ঞ
  10. জনাব এ টি এম কামাল : প্রবীণ রাজনীতিবিদ

   

[ন্যাশনাল কাউন্সিলের মেম্বার এবং এসোসিয়েটদের ভোটে একজন স্পীকার (Speaker) এবং একজন ডেপুটি স্পীকার (Deputy Speaker) নির্বাচিত হবেন। Speaker এবং Deputy Speaker ন্যাশনাল কাউন্সিলের মিটিংগুলো পরিচালনা করবেন।

প্রেসিডেন্ট, এক্সিকিউটিভ প্রেসিডেন্ট এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট এর সমন্বয় সরকারের Executive Division এর সাথে তুলনীয় হলে ন্যাশনাল কাউন্সিল (National Council) সরকারের Legislative Division (আইনসভা) এর সাথে তুলনীয়। ন্যাশনাল কাউন্সিলের মেম্বার এবং এসোসিয়েটরা নিজ নিজ আগ্রহ, দক্ষতা অনুসারে কাজের ফোকাস বেছে নেবেন এবং সম্পর্কিত দলের ফোরামের সাথে নিজেকে যুক্ত করবেন অথবা নিজেই একটি ফোরাম গঠন করবেন।]

 

Advisory Council

Advisors

  1. জনাব সৈয়দ মনজুর এলাহী: ব্যবসায়ী নেতা ও এপেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান; তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা 
  2. ব্রিগেডিয়ার (অব:) ডা. আবদুল মালিক: জাতীয় অধ্যাপক; তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা; স্বাধীনতা পদকজয়ী
  3. ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য : Macro-economist and Public Policy Analyst; Distinguished Fellow, Centre for Policy Dialogue (CPD); Chair, External Advisory Board, Overseas Development Institute (ODI), London
  4. জনাব শাইখ সিরাজ: কৃষি ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব; বার্তাপ্রধান, চ্যানেল আই; অ্যাংকর, হৃদয়ে মাটি ও মানুষ; একুশে পদকসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পদক জয়ী
  5. জনাব শ্যামল দত্ত : সম্পাদক, দৈনিক ভোরের কাগজ; Newly Elected Executive Committee Member of Commonwealth Journalist Association, London; Director, Board of Directors Bangladesh Sangbad Sangstha (BSS), National News Agency of Bangladesh.
  6. জনাব নঈম নিজাম : সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রতিদিন
  7. ড. রেজওয়ান সিদ্দিকী : সম্পাদক, দৈনিক দিনকাল
  8. মিসেস রাশেদা কে চৌধুরী: তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা; ডিরেক্টার, Campaign For Popular Education (CAMPE)
  9. জেনারেল কাজী মুহাম্মদ সফিউল্লাহ, বীর উত্তম: সাবেক সেনাপ্রধান
  10. এডভোকেট সুলতানা কামাল: তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা; এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টার, আইন ও শালিস কেন্দ্র 
  11. ড. ফাহমিদা খাতুন : Research Director and Head of Research at the Centre for Policy Dialogue (CPD)
  12. মিসেস শাহীন আনাম : Executive Director, Manosher Jonno Foundation
  13. প্রফেসর ড. আনিসুজ্জামান: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এমিরিটাস প্রফেসর; মুক্তিযুদ্ধকালীন বাংলাদেশ সরকারের প্ল্যানিং কমিশনের সদস্য এবং বাংলাদেশ সরকারের সংবিধানের বাংলা অংশের দায়িত্বপ্রাপ্ত; প্রেসিডেন্ট, বাংলা একাডেমী; বাংলা একাডেমী পুরস্কার, একুশে পদক, আনন্দ পুরস্কার এবং ভারত সরকারের পদ্মভূষণ পদক প্রাপ্ত
  14. প্রফেসর ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়য়ের এমিরেটাস প্রফেসর 
  15. অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সাইয়িদ: চেয়ারম্যান, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র; লেখক; টিভি ব্যক্তিত্ব; রামন মাগগসে পুরস্কার, একুশে পদক এবং বাংলা একাডেমী পুরস্কার প্রাপ্ত
  16. জনাব জামিল চৌধুরী: BTV র প্রথম ডিরেক্টার জেনারেল; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ফ্যাকাল্টি মেম্বার
  17. জনাব মনজুরুল আহসান খান: প্রবীণ রাজনীতিবিদ; মুক্তিযোদ্ধা; ভাইস প্রেসিডেন্ট, বাংলাদেশ পিস কাউন্সিল
  18. জনাব নুরুল ইসলাম : বাংলাদেশের প্রথম পরিকল্পনা কমিশনের ডেপুটি চেয়ারম্যান
  19. প্রফেসর ডা. শুভাগত চৌধুরী : Director, BIRDEM Laboratory Services; চিকিৎসাবিজ্ঞান বিষয়ক বইয়ের লেখক
  20. প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তামিম : Professor, Petroleum and Mineral Resources Engineering, BUET; তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টার সাবেক জ্বালানি উপদেষ্টা
  21. প্রফেসর ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি; রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ও শিক্ষাবিদ; একুশে পদক প্রাপ্ত   
  22. প্রফেসর ড. মুনিবুর রহমান চৌধুরী : প্রাক্তন প্রফেসর এবং ডিপার্টমেন্ট হেড, Department of Mathematics, Dhaka University; বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সহ-সভাপতি  
  23. প্রফেসর ফেরদৌস হোসাইন: অধ্যাপক, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
  24. জনাব আফসান চৌধুরী : গবেষক, লেখক, সাংবাদিক, ও উন্নয়নকর্মী; সংবাদিক হিসেবে কাজ করেছেন ঢাকা কুরিয়ার, BBC, একুশে টেলিভিশন, দি দেইলি স্‌টার, হিমাল সাউথ এশিয়া; UNICEF এ ছিলেন ১৯৮৬ থেকে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত; Oak Fellow on International Human Rights of the Colby College, USA
  25. প্রফেসর ড. সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম : Professor, Department of English, Dhaka University; লেখক ও গবেষক 
  26. জনাব সোহরাব হাসান : কবি ও সাংবাদিক
  27. জনাব মামুনুর রশিদ: নাট্যকার; চীফ সেক্রেটারি, আরণ্যক থিয়েটার গ্রুপ; একুশে পদক প্রাপ্ত
  28. ইঞ্জিনিয়ার আবুল হায়াত : নাট্যকার এবং অভিনেতা
  29. জনাব আবুল মোমেন : কবি ও সাংবাদিক
  30. জনাব নির্মলেন্দু গুণ : কবি; বাংলা একাডেমী আওয়ার্ড এবং একুশে পদক প্রাপ্ত
  31. জনাব ফারুক ওয়াসিফ : সাংবাদিক ও লেখক
  32. জনাব মিজানুর রহমান চৌধুরী : সাংবাদিক ও লেখক
  33. জনাব হাসান ফেরদৌস : লেখক, গবেষক ও সাংবাদিক
  34. জনাব রণেশ মৈত্র: লেখক, সাংবাদিক, সংস্কৃতিকর্মী, রাজনৈতিক কর্মী ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক 
  35. মিসেস শারমিন আহমদ : শিক্ষাবিদ; বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের জ্যেষ্ঠ কন্যা  
  36. Professor ড. মোঃ আতাউল করিম: Provost and Executive Vice Chancellor, University Of Massachusetts Dartmouth; Fellow, the Optical Society of America; Applied Optics এ গত ৫০ বছরে সবচেয়ে বেশি অবদান রাখা বিশ্বের ৫০ জন গবেষকের একজন; বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত ১৯টি টেক্সটবইয়ের লেখক; গত ১৬ বছর ধরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত ICCITর Conference Chair      
  37. Professor ইকবাল কাদির: Professor of the Practice of Development and Entrepreneurship, MIT; Founder and Director, Legatum Center at MIT; প্রতিষ্ঠাতা, গ্রামীণফোন; Wharton School কর্তৃক ২০০৬ সালে প্রকাশিত ১২৫ জন Influential People and Ideas এর একজন
  38. প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আসগর: ভিসিটিং প্রফেসর, ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি; প্রাক্তন প্রফেসর, বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়; ফেলো, বাংলাদেশ একাডেমি অফ সায়েন্স; গবেষক, Magnetism and Magnetic Materials, Solid State Physics

[বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয় এবং খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত বাংলাদেশীরা Advisory Council এ অ্যাডভাইসার হিসেবে যুক্ত হয়ে দেশের উন্নতির লক্ষ্যে দিক নির্দেশনা প্রণয়ন করবেন।] “নাগরিক শক্তি”র আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশ ঘোষণার পর উল্লেখিত ব্যক্তিরা অ্যাডভাইসারি কাউন্সিলে অ্যাডভাইসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।   

Party Wings – দলীয় অঙ্গ সংগঠন 

[প্রত্যেক অঙ্গ সংগঠন এবং ফোরামকে নিজ নিজ গঠনপ্রণালী, কার্যবিধি, কর্মপরিধি নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হবে। এতে অঙ্গ সংগঠন এবং ফোরামের সদস্যরা empowered অনুভব করবেন এবং লিডারশীপ স্কিলস ডেভেলাপ করার সুযোগ পাবেন।  প্রত্যেক অঙ্গ সংগঠন এবং ফোরামের সদস্যরা নিজেরা একটি কমিটি গঠন করে নিজ নিজ গঠনপ্রণালী, কার্যবিধি, কর্মপরিধি নির্ধারণ করবেন। তবে অঙ্গ সংগঠন এবং ফোরামগুলোকে নাগরিক শক্তির মূলনীতিগুলো (গণতান্ত্রিক আচরণ, জবাবদিহিতা, জাতি ধর্ম বর্ণ নারী পুরুষ নির্বিশেষে সবার স্বার্থ সংরক্ষণ ইত্যাদি) মেনে চলতে হবে এবং সেক্রেটারিয়েট, ন্যাশনাল কাউন্সিল ও অ্যাডভাইসারি কাউন্সিলের কাছে নিয়মিত রিপোর্ট করতে হবে। কোন একদিন অঙ্গ সংগঠনগুলোর একজন সদস্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী এবং অপর একজন সদস্য বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মনোনীত হবেন।]  

নাগরিক ইয়ুথ এসোসিয়েশান [NYA – এন ওয়াই এ]

আহ্বায়ক

  1. জনাব তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ: সাবেক সাংসদ ও স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
  2. জনাব মাহী বি. চৌধুরী: সাবেক সাংসদ
  3. ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ: সাবেক সাংসদ
  4. ব্যারিস্টার সারা হোসেন: আইনজীবী ও মানবাধিকার কর্মী
  5. ব্যারিস্টার তানিয়া আমির: ম্যানেজিং পার্টনার, Amir & Amir Law Associates 
  6. মেহজাবিন চৌধুরী: মডেল ও অভিনেত্রী
  7. বিদ্যা সিনহা মিম: মডেল ও অভিনেত্রী; লেখিকা
  8. সাবিলা নূর: মডেল ও অভিনেত্রী; উদ্যোক্তা
  9. তানজিন তিশা: মডেল ও অভিনেত্রী
  10. শামসুন্নাহার স্মৃতি পরী: অভিনেত্রী
  11. কুসুম সিকদার: মডেল ও অভিনেত্রী
  12. উম্মে আহমেদ শিশির: মডেল
  13. মিলা হোসেন: মডেল ও অভিনেত্রী
  14. মোজেজা আশরাফ মোনালিসা: মডেল ও অভিনেত্রী
  15. অগ্নিলা ইকবাল: মডেল ও অভিনেত্রী
  16. আনিকা কবির শখ: মডেল ও অভিনেত্রী
  17. তাজরিন ফারহানা ঐন্দ্রিলা: মডেল ও অভিনেত্রী
  18. সারিকা সাবরিন: মডেল ও অভিনেত্রী
  19. তারিন আহমেদ: মডেল ও অভিনেত্রী
  20. নাদিয়া আহমেদ: মডেল ও অভিনেত্রী
  21. সাফা কবির: মডেল ও অভিনেত্রী
  22. শেহতাজ মনিরা হাশেম: মডেল ও অভিনেত্রী; মিউজিশিয়ান
  23. মারিয়া নূর: উপস্থাপিকা, মডেল ও অভিনেত্রী
  24. মাসুমা রহমান নাবিলা: অভিনেত্রী; মডেল ও উপস্থাপিকা
  25. সোহানা সাবা: মডেল ও অভিনেত্রী
  26. মৌনিতা খান ঈশানা: মডেল ও অভিনেত্রী
  27. শার্লিন ফারজানা: মডেল ও অভিনেত্রী
  28. শবনম ইয়াসমিন বুবলি: অভিনেত্রী
  29. নুসরাত ফারিয়া: অভিনেত্রী
  30. শবনম ফারিয়া: মডেল ও অভিনেত্রী
  31. অর্চিতা স্পর্শিয়া: মডেল ও অভিনেত্রী
  32. নীলাঞ্জনা নীলা: মডেল ও অভিনেত্রী
  33. নাজিফা তুষি: মডেল ও অভিনেত্রী
  34. সায়রা আক্তার জাহান: মডেল ও অভিনেত্রী
  35. জান্নাতুন নূর মুন: মডেল ও অভিনেত্রী
  36. ব্যারিস্টার নুসরাত খান : লেকচারার, ব্রিটিশ স্কুল অফ ল’
  37. ড. রাগিব হাসান: Assistant Professor, Department of Computer and Information Sciences, University of Alabama at Birmingham; Founder, শিক্ষক.কম
  38. জনাব গোলাম মাওলা রনি: সাবেক সাংসদ
  39. তাহমিমা আনাম: ঔপন্যাসিক; Winner, Commonwealth Writers’ Prize: Best First Book
  40. ডা. ইমরান এইচ. সরকার: মুখপাত্র, গণজাগরণ মঞ্চ; সংগঠক
  41. জনাব তানভীর হুদা : তরুণ রাজনীতিবিদ (http://www.youtube.com/watch?v=jFbB6Mqd0ng)
  42. রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা: মিউজিশিয়ান, মডেল ও অভিনেত্রী; Head, Early Childhood Development and Girls’ Education, BRAC International
  43. জনাব মাহমুদুল হাসান সোহাগ : ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার; চেয়ারম্যান এবং সিইও, অন্যরকম গ্রুপ অফ কোম্পানিস; চেয়ারম্যান, পাইল্যাবস বাংলাদেশ লিমিটেড; বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের একাডেমিক কাউন্সিলের প্রধান 
  44. জনাব ববি হাজ্জাজ : তরুণ রাজনীতিবিদ; Business Development Consultant
  45. আফসানা মিমি: অভিনেত্রী, পরিচালক
  46. অপি করিম: মডেল, অভিনেত্রী; ফ্যাকাল্টি মেম্বার, স্কুল অফ আর্কিটেকচার, এআইইউবি (AIUB)
  47. জনাব আসাদুজ্জামান বাচ্চু : Founding Secretary General, বিকল্প ছাত্র ধারা
  48. ড. মাহবুব মজুমদার: সহযোগী অধ্যাপক, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়;  বাংলাদেশ গণিত দলের কোচ 
  49. ড. চন্দ্র নাথ : Postdoctoral Research Fellow at Georgia Institute of Technology; 2014 SME Outstanding Young Manufacturing Engineer Award Winner
  50. ড. নোভা আহমেদ: এসোসিয়েট প্রফেসার, ইলেক্ট্রিকাল অ্যান্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি
  51. সাবিরুল ইসলাম: বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ তরুণ উদ্যোক্তা ও লেখক; উদ্যোক্তা, inspire1million; Mosaic Entrepreneur of the Year, 2008; JCI Ten Outstanding Young Persons of the World, 2010
  52. জনাব তামিম শাহরিয়ার সুবিন: ম্যানেজিং ডিরেক্টার, মুক্তসফট (Muktosoft) লিমিটেড; সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার
  53. ড. রুবাব খান : পোস্ট ডকটোরাল ফেলো, NASA
  54. জনাব মুসা ইব্রাহীম: এভারেস্ট জয়ী প্রথম বাংলাদেশী  
  55. জনাব মাশরাফি বিন মর্তুজা: বাংলাদেশ ওয়ানডে ও টিটোয়েন্টি ক্রিকেট দলের অধিনায়ক
  56. জনাব মুশফিকুর রহিম: বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট দলের অধিনায়ক
  57. জনাব তামিম ইকবাল: বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সহ-অধিনায়ক
  58. জনাব মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ: বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ও অলরাউন্ডার; সাবেক সহ-অধিনায়ক       
  59. জনাব মুনিম বিন গনি: ইঞ্জিনিয়ারিং মানেজার, পিজিসিবি
  60. জনাব মোঃ মাহবুবুল হাসান: বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়য়ের (BUET) প্রাক্তন শিক্ষক; আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াড ২০০৫ এ অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ গণিত দলের সদস্য
  61. জনাব মোঃ কায়সার আলী: সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, স্যামসাং আরএন্ডডি সেন্টার
  62. জনাব তুহিন তালুকদার: সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ও লেখক
  63. মিসেস সায়মা মুশাররত: লেকচারার, ডিপার্টমেন্ট অফ আর্কিটেকচার, AIUB
  64. ফারাহ হক: কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার, গ্রাজুয়েট রিসার্চ অ্যাসিস্টেন্ট
  65. ফাহমিদা শামস: মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার
  66. জনাব তাহমিদ রাফি: সিইও, দ্বিমিক কম্পিউটিং স্কুল; সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার; আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াড ২০০৫ এ অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ গণিত দলের সদস্য
  67. নাইমুল আরিফ: সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, শিওরক্যাশ, প্রগতী সিস্টেমস লিমিটেড; বাংলাদেশ জাতীয় গনিত অলিম্পিয়াডে প্রথম স্থান অধিকারী
  68. জনাব আক্কাস উদ্দিন জিসান: গ্রাজুয়েট রিসার্চ অ্যাসিস্টেন্ট, University of North Dakota

নাগরিক স্টুডেন্টস এসোসিয়েশান (NSA – এন এস এ)

আহ্বায়ক

  1. নাজমুল হাসান : আহ্বায়ক, নাগরিক ছাত্র ঐক্য
  2. লাকী আক্তার: সংগঠক, গণজাগরণ মঞ্চ; বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক 
  3. নুহাশ হুমায়ূন: ছাত্র, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় 
  4. সাঈদ তাজওয়ার তাহির (আলিফ): চট্ট্রগ্রাম মা-ও-শিশু হসপিটাল মেডিক্যাল কলেজ (CMOSHMC) এ অধ্যয়নরত
  5. তারিক আদনান মুন: যুক্তরাষ্ট্রের Harvard University তে অধ্যয়নরত বাংলাদেশী ছাত্র (গণিত ও কম্পিউটার বিজ্ঞান মেজর); আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের পক্ষে ব্রোঞ্জ পদক জয়ী    
  6. হক মুহম্মদ ইশফাক: যুক্তরাষ্ট্রের Stanford University তে অধ্যয়নরত বাংলাদেশী ছাত্র (গণিত ও বায়োলজি মেজর); আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াড ২০০৮, ২০০৯ ও ২০১০ এ অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ গণিত দলের সদস্য 
  7. নাজিয়া চৌধুরী: যুক্তরাষ্ট্রের Massachusetts Institute Of Technology তে অধ্যয়নরত বাংলাদেশী ছাত্রী; আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের পক্ষে ব্রোঞ্জ পদক জয়ী

 

[দেশের প্রত্যেক বিশ্ববিদ্যালয় – কলেজ – মাদ্রাসায় সবার পছন্দের কয়েকজন আদর্শ ছাত্রছাত্রীকে আহ্বায়ক হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হবে। পাশাপাশি, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অধ্যয়নরত বাংলাদেশী ছাত্রছাত্রীদের আহ্বায়ক হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হবে। নাগরিক শক্তি বিভিন্ন দেশে অধ্যয়নরত বাংলাদেশী ছাত্রছাত্রীদের সাথে দেশের সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করবে।] 
[নাগরিক শক্তির অঙ্গ সংগঠনগুলোর মাঝে নাগরিক ইয়ুথ এসোসিয়েশান (NYA – এন ওয়াই এ), নাগরিক স্টুডেন্টস এসোসিয়েশান (NSA – এন এস এ) র উপর সবচেয়ে বেশি ফোকাস থাকবে। বাংলাদেশের ৯০ ভাগের উপর তরুণ নাগরিক শক্তির সাথে থাকবেন। এই তরুণদের সংগঠিত করা, দিক নির্দেশনা দেওয়ার দায়িত্ব নাগরিক ইয়ুথ এসোসিয়েশান [NYA – এন ওয়াই এ], নাগরিক স্টুডেন্টস এসোসিয়েশান (NSA – এন এস এ) কেই নিতে হবে।]
নাগরিক গণজাগরণ মঞ্চ 
প্রধান আহ্বায়ক 
ডা. ইমরান এইচ. সরকার: মুখপাত্র, গণজাগরণ মঞ্চ  

আহ্বায়ক

জনাব হাসান তারেক : সংগঠক, গণজাগরণ মঞ্চ; ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি

লাকী আক্তার: সংগঠক, গণজাগরণ মঞ্চ; বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক  

জনাব বাপ্পাদিত্ত বসু: সংগঠক, গণজাগরণ মঞ্চ; বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি

জনাব আরিফ জেবতিক: সংগঠক, গণজাগরণ মঞ্চ 

মিসেস সঙ্গীতা ইমাম : উদীচীর সহ-সাধারণ সম্পাদক 

চট্টগ্রাম জেলা নাগরিক গণজাগরণ মঞ্চ  

আহ্বায়ক

ডা. চন্দন দাশ: সদস্য সচিব, চট্টগ্রাম গণজাগরণ মঞ্চ  

জনাব শরীফ চৌহান: সমন্বয়কারী, চট্টগ্রাম গণজাগরণ মঞ্চ 

সিলেট জেলা নাগরিক গণজাগরণ মঞ্চ  

আহ্বায়ক

জনাব দেবাশীষ দেবু : মুখপাত্র, সিলেট গণজাগরণ মঞ্চ

জনাব আবদুল খালিক : মুক্তিযোদ্ধা; সংগঠক, সিলেট গণজাগরণ মঞ্চ 

জনাব আল-আজাদ : ব্যুরো প্রধান, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের সিলেট

জনাব রাজীব রাসেল : সংগঠক, সিলেট গণজাগরণ মঞ্চ

নোয়াখালী জেলা নাগরিক গণজাগরণ মঞ্চ

আহ্বায়ক

জনাব নাজমুর সাকিব পারভেজ : নোয়াখালী জেলা গণজাগরণ মঞ্চের সমন্বয়ক 

মিয়া মো. শাহজাহান: নোয়াখালী নাগরিক কমিটির সভাপতি 

অ্যাডভোকেট কাজি মানছুরুল হক খসরু: নোয়াখালী জেলা একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি

অ্যাডভোকেট এমদাদ হোসেন কৈশোর: সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক

নাগরিক ফ্রিডম ফাইটারস এসোসিয়েশান  আহ্বায়ক ১. বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী: বীর উত্তম; প্রবীণ রাজনীতিবিদ ২. জনাব আ স ম আব্দুর রব: প্রাক্তন মন্ত্রী; প্রবীণ রাজনীতিবিদ; মুক্তিযোদ্ধা

 
নাগরিক আন্ট্রাপ্রেনারস অ্যান্ড ইনভেস্টারস এসোসিয়েশান (NE&IA)

আহ্বায়ক

  1. জনাব এটিএম জাকারিয়া স্বপন: ফাউন্ডার ও সিইও: Priyo.com; টেক এন্ট্রেপ্রেনার; যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ইঞ্জিনিয়ার
  2. জনাব মাহমুদুল হাসান সোহাগ : ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার; চেয়ারম্যান এবং সিইও, অন্যরকম গ্রুপ অফ কোম্পানিস; চেয়ারম্যান, পাইল্যাবস বাংলাদেশ লিমিটেড; বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের একাডেমিক কাউন্সিলের প্রধান

নাগরিক আদিবাসী এসোসিয়েশান আহ্বায়ক

  1. জনাব জোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় (সন্তু) লারমা: পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) সভাপতি 
  2. জনাব পঙ্কজ ভট্টাচার্য: প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার) 
  3. জনাব সৈয়দ আবুল মকসুদ: গবেষক, প্রাবন্ধিক ও কলাম লেখক
  4. জনাব সঞ্জীব দ্রং: বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক 

নাগরিক জারনালিস্টস এসোসিয়েশান আহ্বায়ক ১. জনাব মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর: মিডিয়া ও উন্নয়নকর্মী ২. জনাব সৈয়দ আবুল মকসুদ: গবেষক, প্রাবন্ধিক ও কলাম লেখক

  নাগরিক ইন্ডাস্ট্রিয়ালিস্টস এসোসিয়েশান (NIA)

আহ্বায়ক ১. জনাব সৈয়দ মনজুর এলাহী: ব্যবসায়ী নেতা ও এপেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান; তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ২. জনাব কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ: সভাপতি, FBCCI; ফাউন্ডার চেয়ারম্যান: স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড ৩. জনাব মেজর (অব:) আবদুল মান্নান: সাবেক মন্ত্রী; চেয়ারম্যান, বাংলালায়ন কমিউনিকেশান্স লিমিটেড (সিনিয়ার) ৪. জনাব আতিকুল ইসলাম: সভাপতি, BGMEA ৫. জনাব মোঃ সবুর খান: চেয়ারম্যান, ড্যাফোডিল গ্রুপ; সাবেক চেয়ারম্যান, DCCI; সাবেক চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি    ৬. প্রফেসর মামুনুর রশিদ: ভাইস প্রেসিডেন্ট, BD Ventures Limited; প্রাক্তন ডিরেক্টার, BRAC Business School; প্রাক্তন সিইও, সিটি ব্যাংক লিমিটেড

নাগরিক ফিজিশিয়ান্স এসোসিয়েশান (NPA)
 
নাগরিক ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশান (NEA)

  নাগরিক ল’ইয়ারস এসোসিয়েশান (NLA)  আহ্বায়ক 1. ড. কামাল হোসেন: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের প্রণেতা; সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী 2. ব্যারিস্টার রফিক -উল -হক: জ্যেষ্ঠ আইনজীবী, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট; সমাজসেবক 3. ব্যারিস্টার আমির-উল-ইসলাম: বাংলাদেশের প্রথম সংসদের সংসদ সদস্য এবং বঙ্গবন্ধু কর্তৃক গঠিত মন্ত্রীসভার সদস্য; ভিজিটিং ফ্যাকাল্টি মেম্বার, National Law School University of India এবং Tufts University; গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংবিধানের ড্রাফটিং কমিটির সদস্য; প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট, সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশান

4. ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ: বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির প্রাক্তন সভাপতি 5. প্রফেসর ড. শাহদীন মালিক: আইনজীবী, সুপ্রিম কোর্ট এবং অধ্যাপক, স্কুল অফ ল, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি 6. প্রফেসর ড. আসিফ নজরুল: অধ্যাপক, আইন বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় 7. ড. তুহিন মালিক: আইনজীবী,  সুপ্রিম কোর্ট 8. ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ: সাবেক সাংসদ 9. ব্যারিস্টার সারা হোসেন: আইনজীবী ও মানবাধিকার কর্মী[আইনসভায় আইনপ্রণয়নের জন্য আইনজীবীরাই বেশি উপযুক্ত।]
নাগরিক ওলামা এসোসিয়েশান আহ্বায়ক ১. আল্লামা আহমেদ শফি: হেফাজতে ইসলামের আমীর ২. হাফেজ মুহাম্মদ জুনায়েদ বাবুনগরী: হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব ৩. আল্লামা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ: ইসলাহুল মুসলিমিন বাংলাদেশের সভাপতি ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠের খতিব ৪. ড. মুহাম্মদ আবদুল মুনিম খান: বিশ্ববিদ্যালয়য়ের সহযোগী অধ্যাপক
নিম্ললিখিত ফোরামগুলো অ্যাডভাইসারি কাউন্সিলের (Advisory Council) মাধ্যমে দলের সাথে যুক্ত হবে: 

নাগরিক ইকোনমিক ফোরাম আহ্বায়ক ১. ড. আকবর আলি খান: অর্থনীতিবিদ, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ২. অর্থনীতিবিদ ড. হোসেন জিল্লুর রহমান: তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ৩. অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. আবুল বারাকাত: মুক্তিযোদ্ধা; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ও প্রাক্তন চেয়ারম্যান; জনতা ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান; বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি। ৪. প্রফেসর মামুনুর রশিদ: ভাইস প্রেসিডেন্ট, BD Ventures Limited; প্রাক্তন ডিরেক্টার, BRAC Business School; প্রাক্তন সিইও, সিটি ব্যাংক লিমিটেড ৫. প্রফেসর ড. এম এম আকাশ: প্রফেসর, অর্থনীতি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ৬. প্রফেসর আনু মুহাম্মদ: অর্থনীতিবিদ ও অধ্যাপক, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় 

নাগরিক ফরেইন পলিসি অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল রিলেশান্স ফোরাম আহ্বায়ক

  1. প্রফেসর এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী: বাংলাদেশের ১৩তম রাষ্ট্রপতি; সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী; প্রফেসর অফ মেডিসিন
  2. জনাব শমসের মবিন চৌধুরী, বীর বিক্রম : কূটনীতিবিদ; পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব; সাবেক অ্যাম্বাসাডার; প্রবীণ রাজনীতিবিদ (সিনিয়ার)

নাগরিক বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও শিক্ষা ফোরাম আহ্বায়ক

১. প্রফেসর ড. সিদ্দিক-ই- রাব্বানী: ফাউন্ডিং চেয়ারপার্সন, ডিপার্টমেন্ট অফ বায়োমেডিকাল ফিজিক্স অ্যান্ড টেকনোলজি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; বাংলাদেশ একাডেমী অফ সায়েন্স কর্তৃক গোল্ড মেডেল প্রাপ্ত বিজ্ঞানী ২. প্রফেসর ড. মুহম্মদ ইব্রাহীম: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়য়ের পদার্থবিজ্ঞানের অধ্যাপক; “বিজ্ঞান সাময়িকী”র প্রতিষ্ঠাতা; এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টার, Center for Mass Education in Science (CMES) ৩. প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ: অধ্যাপক, বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়; ফেলো, বাংলাদেশ একাডেমী অফ সায়েন্সেস; বাংলাদেশে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা এবং গণিত অলিম্পিয়াড সূচনার পথিকৃৎ ৪. ড. মাহবুব মজুমদার: সহযোগী অধ্যাপক, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়; বাংলাদেশ গণিত দলের কোচ ৫. ব্রাদার জেমস পেরেইরা: সেন্ট জোসেফ হাইয়ার সেকেন্ডারি স্কুলের প্রাক্তন প্রিন্সিপাল 

নাগরিক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ফোরাম 

আহ্বায়ক ১. প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ: অধ্যাপক, বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়; ফেলো, বাংলাদেশ একাডেমী অফ সায়েন্সেস; বাংলাদেশে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা এবং গণিত অলিম্পিয়াড সূচনার পথিকৃৎ ২. জনাব এটিএম জাকারিয়া স্বপন: ফাউন্ডার ও সিইও: Priyo.com; টেক এন্ট্রেপ্রেনার; যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ইঞ্জিনিয়ার। ৩. ড. রাগিব হাসান: Assistant Professor, Department of Computer and Information Sciences, University of Alabama at Birmingham; প্রতিষ্ঠাতা, শিক্ষক.কম ৪. জনাব তামিম শাহরিয়ার সুবিন: ম্যানেজিং ডিরেক্টার, মুক্তসফট (Muktosoft) লিমিটেড; সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ৫. জনাব হাসিন হায়দার: ফাউন্ডার, Leevio; সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ৬. জনাব মাহবুবুল হাসান শান্ত: বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়য়ের প্রাক্তন শিক্ষক; আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াড ২০০৫ এ অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ গণিত দলের সদস্য ৭. জনাব তাহমিদ-উল-ইসলাম রাফি: সিইও, দ্বিমিক কম্পিউটিং স্কুল; সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার; আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াড ২০০৫ এ অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ গণিত দলের সদস্য

নাগরিক জাতীয় সম্পদ রক্ষা ফোরাম আহ্বায়ক ১. প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ: তেল-গাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক  ২. প্রফেসর আনু মুহাম্মদ: অর্থনীতিবিদ ও অধ্যাপক, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়; তেল-গাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্যসচিব 

নাগরিক সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ফোরাম  আহ্বায়ক ১. অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. আবুল বারাকাত: মুক্তিযোদ্ধা; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ও প্রাক্তন চেয়ারম্যান; জনতা ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান; বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি ২. প্রফেসর ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল: লেখক; বিভাগীয় প্রধান, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়; সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটি ৩. জনাব জোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় (সন্তু) লারমা: পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) সভাপতি

নাগরিক নারী অধিকার ফোরাম  আহ্বায়ক ব্যারিস্টার সারা হোসেন: আইনজীবী ও মানবাধিকার কর্মী 

নাগরিক শিল্প, সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ফোরাম  আহ্বায়ক ১. অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সাইয়িদ: চেয়ারম্যান, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র; লেখক; টিভি ব্যক্তিত্ব; রামন মাগগসে পুরস্কার, একুশে পদক এবং বাংলা একাডেমী পুরস্কার প্রাপ্ত ২. জনাব হানিফ সংকেত: টিভি, মিডিয়া ও সংস্কৃতি ব্যক্তিত্ব ৩. জনাব আইয়ুব বাচ্চু: সঙ্গীতজ্ঞ; গায়ক; ব্যান্ড দল LRBর প্রধান    ৪. জনাব আফজাল হোসেন: বিশিষ্ট অভিনেতা 

নাগরিক শক্তির জেলা ভিত্তিক অঙ্গ সংগঠন

ঢাকা জেলা নাগরিক শক্তি আহ্বায়ক 

  1. ব্যারিস্টার রোকনউদ্দিন মাহমুদ

চট্টগ্রাম জেলা নাগরিক শক্তি আহ্বায়ক

  1. অর্থনীতিবিদ ড. হোসেন জিল্লুর রহমান: তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা
  2. জনাব জাফরুল ইসলাম চৌধুরীপ্রবীণ রাজনীতিবিদসাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য

যুগ্ম আহ্বায়ক 

  1. জনাব মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর: মিডিয়া ও উন্নয়নকর্মী
  2. হাফেজ মুহাম্মদ জুনায়েদ বাবুনগরী: হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব
  3. জনাব আইয়ুব বাচ্চু: সঙ্গীতজ্ঞ; গায়ক; ব্যান্ড দল LRBর প্রধান   
  4. জনাব মীর মোহাম্মদ সাকি কাউসার: অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর, চট্ট্রগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়; দেশের ৪টি বিআইটিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরের সংগঠক

টাঙ্গাইল জেলা নাগরিক শক্তি আহ্বায়ক

  1. বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী

সিলেট জেলা নাগরিক শক্তি আহ্বায়ক

  1. জনাব সুলতান মোহাম্মদ মনসুর : প্রবীণ রাজনীতিবিদ; সাবেক সাংসদ ও ঢাকসুর সাবেক ভিপি

নারায়ণগঞ্জ জেলা নাগরিক শক্তি  আহ্বায়ক

  1. জনাব রফিউর রাব্বি: সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব; সংগঠক; সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক

যুগ্ম আহ্বায়ক 

  1. জনাব এস এম আকরাম: সাবেক সাংসদ
  2. জনাব এ টি এম কামাল : প্রবীণ রাজনীতিবিদ

মুন্সিগঞ্জ জেলা নাগরিক শক্তি আহ্বায়ক

  1. জনাব মাহী বি. চৌধুরী: মুন্সিগঞ্জ-১ আসনের সাবেক সাংসদ

গাজীপুর জেলা নাগরিক শক্তি আহ্বায়ক

  1. জনাব তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ: গাজীপুর-৪ আসনের সাবেক সাংসদ; সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

ভোলা জেলা নাগরিক শক্তি আহ্বায়ক

  1. ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ: ভোলা-১ আসনের সাবেক সাংসদ

পটুয়াখালী জেলা নাগরিক শক্তি আহ্বায়ক

  1. জনাব গোলাম মাওলা রনি : পটুয়াখালী – ২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য; ফাউন্ডার, dnewsbd.com
নাগরিক শক্তির উপজেলা ভিত্তিক অঙ্গ সংগঠন
সাদুল্লাপুর উপজেলা (গাইবান্ধা জেলা) নাগরিক শক্তি
আহ্বায়ক
জনাব মুসা ইব্রাহীম : এভারেস্ট পর্বত জয়ী প্রথম বাংলাদেশী

 

নাগরিক শক্তির প্রতীক হবে “বই” মূলমন্ত্র হবে “জ্ঞানের আলোয় উন্নত বাংলাদেশ”।   নাগরিক শক্তির মূলনীতি 1. জাতীয়তাবাদ: সবকিছুর উপর জাতীয় স্বার্থ

  • “জাতীয়তাবাদ”

2. মুক্তিযুদ্ধের চেতনা

  • “যে সকল মহান আদর্শ আমাদের বীর জনগণকে জাতীয় মুক্তি সংগ্রামে আত্মনিয়োগ ও বীর শহীদদিগকে প্রাণোৎসর্গ করিতে উদ্বুদ্ধ করিয়াছিল … সেই সকল আদর্শ এই সংবিধানের মূলনীতি হইবে ;

3. জনগণের ক্ষমতায়ন, সমতা ও আইনের শাসন : জাতি ধর্ম বর্ণ শ্রেণী পেশা নারী পুরুষ নির্বিশেষে সবার একতা, সবার স্বার্থ সংরক্ষণ; সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশের স্বপ্নে সবাই ঐক্যবদ্ধ

  • “ধর্মনিরপেক্ষতা”
  • “আমাদের রাষ্ট্রের অন্যতম মূল লক্ষ্য হইবে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে এমন এক শোষণমুক্ত সমাজতান্ত্রিক সমাজের প্রতিষ্ঠা- যেখানে সকল নাগরিকের জন্য আইনের শাসন, মৌলিক মানবাধিকার এবং রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সাম্য, স্বাধীনতা ও সুবিচার নিশ্চিত হইবে;”
4. গণতন্ত্র : গণতন্ত্রমনা – দলের প্রতিটি কর্মকাণ্ডে জনগণের মতামত, আশা আকাঙ্ক্ষা প্রতিফলিত হবে, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা হবে
  • “গণতন্ত্র” 
5. অন্যায় – দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান : সকল অন্যায়, অপকর্ম, অত্যাচার, দুর্নীতির বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান
  • “আমাদের রাষ্ট্রের অন্যতম মূল লক্ষ্য হইবে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে এমন এক শোষণমুক্ত সমাজতান্ত্রিক সমাজের প্রতিষ্ঠা”  

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান প্রস্তাবনা আমরা, বাংলাদেশের জনগণ, ১৯৭১ খ্রীষ্টাব্দের মার্চ মাসের ২৬ তারিখে স্বাধীনতা ঘোষণা করিয়া ২[ জাতীয় মুক্তির জন্য ঐতিহাসিক সংগ্রামের] মাধ্যমে স্বাধীন ও সার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত করিয়াছি; ৩[ আমরা অঙ্গীকার করিতেছি যে, যে সকল মহান আদর্শ আমাদের বীর জনগণকে জাতীয় মুক্তি সংগ্রামে আত্মনিয়োগ ও বীর শহীদদিগকে প্রাণোৎসর্গ করিতে উদ্বুদ্ধ করিয়াছিলজাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতার সেই সকল আদর্শ এই সংবিধানের মূলনীতি হইবে ;] আমরা আরও অঙ্গীকার করিতেছি যে, আমাদের রাষ্ট্রের অন্যতম মূল লক্ষ্য হইবে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে এমন এক শোষণমুক্ত সমাজতান্ত্রিক সমাজের প্রতিষ্ঠা- যেখানে সকল নাগরিকের জন্য আইনের শাসন, মৌলিক মানবাধিকার এবং রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সাম্য, স্বাধীনতা ও সুবিচার নিশ্চিত হইবে; আমরা দৃঢ়ভাবে ঘোষণা করিতেছি যে, আমরা যাহাতে স্বাধীন সত্তায় সমৃদ্ধি লাভ করিতে পারি এবং মানবজাতির প্রগতিশীল আশা-আকাঙ্খার সহিত সঙ্গতি রক্ষা করিয়া আন্তর্জাতিক শান্তি ও সহযোগিতার ক্ষেত্রে পূর্ণ ভূমিকা পালন করিতে পারি, সেইজন্য বাংলাদেশের জনগণের অভিপ্রায়ের অভিব্যক্তিস্বরূপ এই সংবিধানের প্রাধান্য অক্ষুণ্ন রাখা এবং ইহার রক্ষণ, সমর্থন ও নিরাপত্তাবিধান আমাদের পবিত্র কর্তব্য; এতদ্বারা আমাদের এই গণপরিষদে, অদ্য তের শত ঊনআশী বঙ্গাব্দের কার্তিক মাসের আঠারো তারিখ, মোতাবেক ঊনিশ শত বাহাত্তর খ্রীষ্টাব্দের নভেম্বর মাসের চার তারিখে, আমরা এই সংবিধান রচনা ও বিধিবদ্ধ করিয়া সমবেতভাবে গ্রহণ করিলাম। [2] References

  1. বাংলাদেশ রাষ্ট্রের মূল লক্ষ্য প্রতিষ্ঠায় নাগরিক শক্তি
  2. গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান
  3. নাগরিক শক্তিঃ সংগঠন (Organization Of Nagorik Shakti) 

Economic Philosophy Of Nagorik Shakti

Economic Philosophy Of Nagorik Shakti  

  1. “Free Market Economy”
  2. The need for Government Intervention
  3. Empowerment of People  #EmpowermentOfPeople

#FreeMarketEconomyForNations

1. “Free Market Economy”

নাগরিক শক্তি “Free Market Economy” – Proponent (মুক্তবাজার অর্থনীতির প্রবক্তা)
নাগরিক শক্তি বিশ্বাস করে, Market এ বিভিন্ন Firms এবং Individuals (Example: Labor Market) এর Competition এর মাধ্যমেই সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নতি ও প্রগতি ত্বরান্বিত হয়।

 

“Free Market Economy” Proponent হিসেবে নাগরিক শক্তি ক্ষমতায় গিয়ে সব সরকারি ব্যাংক, বাংলাদেশ বিমান সহ বিভিন্ন সরকারি লাভজনক প্রতিষ্ঠানকে পর্যায়ক্রমে বেসরকারিকরণ (Privatization) করবে। 

  • Privatization প্রক্রিয়ায় লক্ষ্য রাখতে হবে – যাতে Monopoly তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা না থাকে। Bangladesh Biman কে প্রাইভেটাইজেশান করা যায় – কারণ বাংলাদেশে অন্যান্য প্রাইভেট এয়ারলাইন রয়েছে – যাদের সাথে Market এর জন্য প্রতিযোগিতা করবে। কিন্তু Bangladesh Railways কে Privatize করলে Monopoly তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে – রেলের টিকেটের ভাড়া ইচ্ছেমত নির্ধারণ করতে পারবে।   

 

2. The need for Government Intervention

অর্থনীতির এমন কিছু ক্ষেত্র রয়েছে – যেসব Market (বাজার) সমাধান করতে উৎসাহিত হয় না।

যেমন Market (অর্থাৎ বিভিন্ন Firms) দারিদ্র্য দূরীকরণ, Inequality (অসাম্য) দূরীকরণ এবং সামাজিক নানা সমস্যা (যেমন – দেশের শিশু মৃত্যু হার কমানো) সমাধানে সবসময় কার্যকর পদক্ষেপ রাখে না।

Firms গুলোর মূল লক্ষ্য থাকে Profit Maximization. এ কারণে, Profit নেই এমন খাতগুলোতে Market বিনিয়োগ করে না।

নাগরিক শক্তির অর্থনৈতিক দর্শন: Market যেসব সমস্যা সমাধানে উৎসাহী নয় – Government (সরকার) সেই সব ক্ষেত্র চিহ্নিত (identify) করে – পরিচালনার উদ্যোগ নেবে।

Market এর বাইরের যেসব ক্ষেত্র Government পরিচালনা করবে সেসব ক্ষেত্রে নাগরিক শক্তি Win-win বা Positive-sum game ব্যবস্থা (System) চালু করবে। অর্থাৎ এমন Mechanism Design (See: Game Theory) করবে যেখানে সবগুলো পক্ষ সর্বোচ্চ লাভবান হবে।
 

3. Empowerment of People  #EmpowermentOfPeople

নাগরিক শক্তি বিশ্বাস করে, প্রত্যেকটা মানুষের মাঝে রয়েছে Enormous potentialপ্রত্যেকটি মানুষ এক একটি বিশাল সম্ভাবনা।
এভাবে ১৬ কোটি মানুষের অন্তর্নিহিত শক্তিকে জাগিয়ে তুলতে পারলে বাংলাদেশের পক্ষে দ্রুত উন্নতির শিখরে আরোহণ করা সম্ভব।
অন্তর্নিহিত শক্তিকে জাগিয়ে তোলার অংশ হিসেবে – নাগরিক শক্তি জনগণের Empowerment (ক্ষমতায়ন) নিশ্চিত করবে।
সরকার পরিচালনায়, অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনায় নাগরিক শক্তির লক্ষ্য হবে ১৬ কোটি মানুষের সেই বিপুল শক্তিকে জাগিয়ে তোলা এবং এর মাধ্যমে দেশের উন্নতি নিশ্চিত করা।
  • জনগণের অন্তর্নিহিত শক্তিকে জাগিয়ে তোলা (Empowerment of people) র অংশ হিসেবে নাগরিক শক্তি শিক্ষাখাত (Education Sector) কে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেবে। [See: নাগরিক শক্তির শিক্ষা উন্নয়ন পরিকল্পনার রূপরেখা (TahsinVersion2)] স্বাস্থ্যসুবিধা (Healthcare Facilities) নিশ্চিত করবে এবং ব্যবসা-শিল্প-বিনিয়োগ-উদ্যোক্তা বান্ধব (Entrepreneurship Development) পরিবেশ গড়ে তুলবে। জনসাধারণের বিকাশের লক্ষ্যে বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম গড়ে তুলবে। 

একদিকে শিল্পের বিকাশ এবং অন্যদিকে জনকল্যাণমুখী অর্থনীতি চালু করে নাগরিক শক্তি বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে একটি অর্থনৈতিক শক্তি হিসেবে গড়ে তুলবে।

The Fallacies Of Socialism & Communism

সমাজতান্ত্রিকরা মনে করেন, পুঁজিবাদের বিকাশ ঘটলে পুঁজিবাদীরা শ্রমিক শ্রেণী থেকে লুট করে ধনী হন।
কিন্তু আমরা বিশ্বাস করি, এমন পদ্ধতি চালু করা সম্ভব যেখানে সব পক্ষ সর্বোচ্চ লাভবান হবে, সব পক্ষই জিতবে (Win-win; Positive Sum Game)
পুঁজিবাদের বিকাশ ঘটলে মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়। শিল্পের মালিকরা শ্রমিকদের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে ব্যবস্থা নিলে, কারখানার পরিবেশ উন্নত করলে অধিকতর উৎপাদনশীলতা থেকে মালিকরা লাভবান হন।
অন্যদিকে, শ্রমিকদের আর্থিক অবস্থার উন্নতি ঘটলে তারা শিল্প পণ্য আরও বেশি কেনেন। এভাবে শিল্পের বিকাশ ত্বরান্বিত হয়।

Karl Marx (কার্ল মার্ক্স ১৮১৮ – ১৮৮৩) ছিলেন 19th Century র। Karl Marx যখন সমাজতন্ত্র প্রবর্তন করেছিলেন – তখনও প্রযুক্তি এবং মেশিন সমৃদ্ধ শিল্পের বিকাশ ঘটেনি। বিকাশ ঘটেনি আধুনিক Management র। কার্ল মার্ক্সের সময় শ্রমিকদের পক্ষে Production (উৎপাদন) সম্পূর্ণভাবে পরিচালনা করা সম্ভব ছিল। Marx প্রভাবিত হয়েছিলেন – মূলত শ্রমিকদের জীবন এবং অসহায়ত্ব পর্যবেক্ষণ করে। তার লক্ষ্য ছিল শ্রমিকদের প্রাপ্য অধিকার নিশ্চিত করা।

কিন্তু 20th Century তে Thomas Alva Edison, Nikola Tesla র Electric Power, Ford র Mass Production Factory (গাড়ি উৎপাদনের জন্য) বিকাশের মাধ্যমে শিল্প কারখানায় Technology, Automation, Machinery এবং Management এর ব্যবহার প্রতিষ্ঠিত হয়। 

আমরা যে BBA, MBA পড়ি – Management এর Need (প্রয়োজনীয়তা) সৃষ্টি এবং বিকাশ কিন্তু 20th Century র phenomenon –  Mass Production Industry – establishment এর মাধ্যমে – যখন বড় শিল্প প্রতিষ্ঠানের সমস্ত Production পরিচালনার জন্য Manager র দরকার পড়ে।

ফলে 20th Century তে “শুধুমাত্র শ্রমিক”দের পক্ষে Production (উৎপাদন) আর সম্ভব নয় – যা সম্ভব ছিল Marx এর সময়ে।

পুরো Production পরিচালনা করতে শ্রমিকদের Engineering এবং Management শিখতে হবে – যা Marx এর সময় প্রয়োজন ছিল না! 

Economics এ Production এর Input এর মাঝে Capital এবং Technology ক্রমেই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে – 19th Century তে প্রাধান্য ছিল Land এবং Labor এর।

পরীক্ষায় সাফল্যে যেমন প্রতিযোগিতা ভূমিকা রাখে (“First হতে হবে” বা “Math Olympiad Team এ জায়গা করে নিতে হবে!”) – অর্থনীতির বিকাশেও Firms গুলোর মাঝে Competition (প্রতিযোগিতা) ভূমিকা রাখে (“ERP Software Sector এ আমাদের Dominate করতে হবে!”)। Socialist Economy গুলোতে Competition নেই বলে ভালো কাজের, নিজেকে আরও উপরে নিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণাও নেই।

সরকারের দায়িত্ব হল – Competition এর মাধ্যমে যাতে “সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নয়ন” (Economy as a whole) ত্বরান্বিত হয় – সেই লক্ষ্যে Platform গড়ে দেওয়া।

Firms গুলো শুধু নিজেদের “Profit Maximize” করে, কিন্তু Government কে “Economy as a whole” ঠিকপথে এগুচ্ছে কিনা দেখতে হয়।

যেমন – Entrepreneurship Development (One way to Empower people) এর জন্য

Electricity and Gas Supply,

Infrastructure Development,

Ease of Starting Business এর জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ (যেমন – Administrative Complexity কমিয়ে আনা),

Banking Sector, Venture Capital এবং অন্যান্য Financial System এর মাধ্যমে Finance নিশ্চিত করা।

Centrally Planned Economy (Russia, China, North Korea) গুলোতে আমরা দেখছি – Communist Party গুলো নিজেদের ক্ষমতা ধরে রাখতে Free Speech র অধিকার থেকে জনগণকে বঞ্চিত করে। Social Media র উপর Censorship আরোপ করে এবং শুধুমাত্র “State-owned” Media গুলোকে approve করে। Media ব্যবহার করে Government র Propaganda চালানোর কাজে।

পাশাপাশি, পুরো ক্ষমতা সরকারের কাছে থাকায় – এসব দেশে Corruption ও বেশি। এসব দেশে Mixed Economy প্রচলিত – যেখানে Controlled development of Market ঘটেছে এবং Government, Ruling Communist Party ও Government এর অনুগতদের বিভিন্ন সুযোগ (Corruption) দেওয়া হয়।

Karl Marx কি এই লক্ষ্যে Socialism প্রবর্তন করেছিলেন – নাকি শ্রমিকদের বঞ্চনা এবং বঞ্চনামুক্তি – তার Economic Philosophy র ভিত্তি ছিল?

আমাদের দেশের সমস্যা হল, দুষ্ট রাজনীতির কারণে আইন শৃঙ্খলার উরধে উঠে দুর্নীতি সন্ত্রাসে নিমজ্জিত একদল লুটেরা শ্রেণীর উদ্ভব ঘটেছে।

নাগরিক শক্তি জনগণকে নিয়ে এই অপরাধী শ্রেণীর হাত থেকে জনগণকে রক্ষা করবে এবং জনগণের ক্ষমতা অধিষ্ঠিত করবে।

 

Related Articles:

“I am willing to assist China & President Xi Jinping to deal with the Challenges – China faces today:

  • Dealing with a Middle Class (in the Urban region) that is ever more demanding.
  • Rural Region: Transition from Socialist (Collective Ownership) to Market-Driven Economy.
  • Challenges of Economic Reforms: Gradual opening of Markets (that President Xi Jinping & The Communist Party has in agenda).
  • Challenges of opening up Media. Promotion of Freedom, Liberty & Free Speech.



References

  1. Articles On Economics, Economic Issues (TahsinVersion2)
  2. The Idea Of Promoting Non-zero Sum Games: How Winning With Others Helps You Win Bigger (TahsinVersion2)
  3. শিল্পের মালিকরা যখন কর্মীদের নিয়ে জয়ী হন (TahsinVersion2)
  4. নাগরিক শক্তির অর্থনৈতিক উন্নয়ন পরিকল্পনার রূপরেখা (TahsinVersion2) 
  5. দুর্নীতি দূরীকরণ এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নতি (TahsinVersion2) 
  6. ফাইনান্সিয়াল সিস্টেমে সংস্কার (TahsinVersion2)
  7. চট্টগ্রাম বন্দর দেশের অর্থনীতির চাকা ঘুরিয়ে দিতে পারে (TahsinVersion2)
  8. তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিলিয়ন ডলার রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা অর্জন (TahsinVersion2)
  9. নাগরিক শক্তির শিক্ষা উন্নয়ন পরিকল্পনার রূপরেখা (TahsinVersion2)
  10. শিক্ষা উন্নয়ন পরিকল্পনা (TahsinVersion2)
  11. নারী অধিকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সামাজিক অগ্রগতিঃ প্রেক্ষাপট বাংলাদেশ [TahsinVersion2]
  12. বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়ন (TahsinVersion2)
  13. “Large Scale Engineering” In Bangladesh (TahsinVersion2)
[কল্পনা করুন, প্রতিদিন ১ থেকে দেড় ঘণ্টায় ঢাকা – চিটাগং ট্রেন জার্নি করতে পারলে – কি কি করতেন!
ঢাকার যানজট নিয়ে চিন্তিত? বিরক্ত? ঠিক করে দেবো!]